কানপুর ট্রেন দুর্ঘটনায় প্রেশার কুকার বোমা দিয়ে নাশকতা, জানালেন IS সন্দেহভাজনরা

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 20, 2017 12:48 PM IST
কানপুর ট্রেন দুর্ঘটনায় প্রেশার কুকার বোমা দিয়ে নাশকতা, জানালেন IS সন্দেহভাজনরা
আহতদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা ৷
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 20, 2017 12:48 PM IST

#লখনউ: প্রেশার কুকারে বিস্ফোরক ভরে উড়িয়ে দেওয়া হয় ট্রেনের ট্র্যাক ৷ এর ফলেই গত ২০ নভেম্বর কানপুরের পুখরায়নে দুর্ঘটনায় পড়ে ইন্দোর–পাটনা এক্সপ্রেস ৷ মৃত্যু হয় ১৫০ জন নিরীহ মানুষের ৷ সম্প্রতি বিহার পুলিশের হাতে ধৃত তিন আইএস সন্দেহভাজনকে জেরা করে এমনই তথ্য জানা গিয়েছে ৷

ISI চর সন্দেহে মোতিলাল পাশওয়ান, উমাশংকর পটেল ও মুকেশ যাদব নামের তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ ৷ তখনই সামনে আসে কানপুর রেল দুর্ঘটনায় আইএস যোগ ৷

উত্তরপ্রদেশ ATS সূত্রে খবর, জেরায় ধৃতরা জানিয়েছে আইএস-এর নির্দেশেই ভারতীয় রেলকে টার্গেট করেছিল তারা ৷ রেলওয়ে ট্র্যাকে নাশকতা ঘটিয়ে কিভাবে চ্রেন দুর্গটনা ঘটানো যাবে তাঁর পুরো প্রশিক্ষণ দেওয়ার পর মোতিলালদের নির্দিষ্ট দিনে কানপুর স্টেশনে পাঠানো হয় ৷

পূর্ব নির্দেশ ও জায়গা মতোই তারা প্রেশার কুকারে বিস্ফোরক ভরে কানপুর থেকে ১০০ কিমি দূরে নির্দিষ্ট জায়গায় ট্রেন ট্র্যাকে রেখে দেয় ৷ বিস্ফোরণে উড়ে যায় রেলওয়ে লাইন ৷ ফলে ওই ট্র্যাক ধরে ইন্দোর–পাটনা এক্সপ্রেস আসায় প্রবল দুর্ঘটনা ঘটে ৷ লাইনচ্যুত হয় ওই ট্রেনের ১৪টি বগি ৷ এই পুরো অপরাশেনের জন্য দুবাই থেকে তাদের ২৫ লক্ষ টাকা পাঠিয়েছিল ISI এজেন্ট শামসুল হুডি নামে এক ব্যক্তি। শামসুলের খোঁজে নেমেছে তদন্তকারীরা ৷

ধৃতদের সমস্ত দাবি খতিয়ে দেখতে আবারও দুর্ঘটনাস্থলে যাবে ATS এর ফরেন্সিক টিম ৷ ধৃত তিন আইএস সন্দেহভাজন পুলিশি জেরার মুখে জানিয়েছে, শুধু নভেম্বরেই নয়, ডিসেম্বর ২৮ তারিখেও কানপুরের দেহাতে তারা নাকি আরেকটি ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটায় ৷ এই অপারেশনের নির্দেশ দিয়েছিল ব্রিজ কিশোর গিরি নামে আরেক আইএস এজেন্ট ৷ এই মুহূর্তে সে নেপাল পুলিশের হেফাজতে ৷ স্বাস্থ্যের অবনতি হওয়ায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৷

এই স্বীকারোক্তি পাক গুপ্তচর সংস্থার ভারত বিরোধী পদক্ষেপের প্রমাণ দিচ্ছে। তাই এই তদন্তের উপর নজর রাখছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা NIA। প্রয়োজনে NIA তদন্তভার গ্রহণ করতে পারে বলেও জানা গিয়েছে।

First published: 12:48:50 PM Jan 20, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर