‘ভারতে কোনও অসহিষ্ণু ব্যক্তির জায়গা নেই’, বললেন রাষ্ট্রপতি

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Mar 03, 2017 10:13 AM IST
‘ভারতে কোনও অসহিষ্ণু ব্যক্তির জায়গা নেই’, বললেন রাষ্ট্রপতি
Photo : AFP
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Mar 03, 2017 10:13 AM IST

#নয়াদিল্লি: রামজস কলেজের ছাত্র সংঘর্ষের ঘটনায় বৃহস্পতিবার মুখ খুললেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় ৷ কেরলের কোচিতে ষষ্ঠ কেসি রাজামণি স্মারক বক্তৃতায় রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘ভারতে অসহিষ্ণুতার কোনও জায়গা নেই ৷ ’ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেন, ‘কোনও রকম অস্থিরতা বা বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি না করে পড়ুয়াদের উচিৎ যুক্তিনিষ্ঠ আলোচনা ও বিতর্কে যোগ দেওয়া ৷’

এদিন তিনি আরও বলেন, ‘ভারত সব সময় মুক্ত চিন্তা ও ভাবপ্রকাশে বিশ্বাসী ৷ বাক স্বাধীনতা সকলের সাংবিধানিক অধিকার ৷ কিন্তু বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি করা মোটেই কাম্য নয়। মৌলিক অধিকার যেন দেশের সার্বভৌমত্বে আঘাত না আনে সেই দিকে খেয়াল রাখতে হবে ৷ আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করা উচিৎ ৷’

বিতর্কের সূত্রপাত ২২ ফেব্রুয়ারি। জেএনইউ-এর ছাত্র উমর খালিদের বক্তৃতা ছিল দিল্লির রামজস কলেজ। কর্তৃপক্ষ বক্তৃতা বাতিলকে কেন্দ্র করে দেয়। এরপরই রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় কলেজ চত্বর। ছাত্র সংগঠন আইসা এবং এবিভিপি-র সংঘর্ষে আহত হন বেশ কয়েকজন। আরএসএস-এর ছাত্র সংগঠন এবিভিপির বিরুদ্ধে মুখ খোলেন শ্রীরাম কলেজের ছাত্রী গুরমেহর কওর। তাঁর আরও একটি পরিচয়, কার্গিল যুদ্ধে নিহত ক্যাপ্টেন মনদীপ সিং-এর মেয়ে গুরমেহর। শহিদের মেয়ের এবিভিপি বিরোধী পোস্ট দ্রুতই খবরের শিরোনাম হয়ে ওঠে।

এরপরই গুলমেহর কউরের বক্তব্যকে ঘিরে শুরু হয় তীব্র বিতর্ক ৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে ধর্ষণের হুমকিও দেওয়া হয় ৷ এই বিষয়ে রাষ্ট্রপতি জানান, মহিলা ও শিশুদের প্রতি আঘাত করা উচিৎ নয় ৷ মহিলাদের প্রতি আচরণই ঠিক করে সেই রাষ্ট্রকে সভ্য বলে গণ্য করা হবে কিনা ৷’

First published: 10:13:00 AM Mar 03, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर