সংসদে প্রধানমন্ত্রীর টার্গেটে কংগ্রেস ও গান্ধি পরিবার

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 07, 2017 03:37 PM IST
সংসদে প্রধানমন্ত্রীর টার্গেটে কংগ্রেস ও গান্ধি পরিবার
Picture Courtesy Loksabha TV
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Feb 07, 2017 03:37 PM IST

#নয়াদিল্লি:  রাষ্ট্রপতির ভাষণের জবাবি বক্তৃতায় মোদির টার্গেটে কংগ্রেস। কখনও নাম করে, কখনও নাম না করে গান্ধি পরিবারকে নজিরবিহীন আক্রমণ শানালেন মোদি। বললেন, দেশের গণতন্ত্র একটি পরিবারের কাছে আহুতি দেওয়া হয়েছে। ভারতের স্বাধীনতা কোনও পরিবারের অবদান নয়। মোদির নিশানায় ইন্দিরা গান্ধি থেকে রাজীব, সোনিয়া ও রাহুল। বাদ গেলেন না লোকসভায় কংগ্রেসের বিরোধী দলনেতা মল্লিকার্জুন খাড়গেও।

প্রায় দু’মাস চুপ থাকার পর রাহুলকে ভুমিকম্প খোঁচা ফিরিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সংসদের বাইরে রাহুলের তীব্র অভিযোগ, সংসদে হাসিঠাট্টা করেই উড়িয়ে দিলেন মোদি ৷ নোটবাতিল নিয়ে সরকার যে আলোচনা চায় না, এমন অভিযোগও করেন রাহুল। তীব্র ব্যঙ্গে মঙ্গলবার তার জবাব দেন নরেন্দ্র মোদি।

 সোমবার সংসদে দেশে জরুরি অবস্থা চলছে বলে অভিযোগ করেন সোনিয়া গান্ধি। চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই সংসদের ভাষণে নাম না করে কংগ্রেস সভানেত্রীকে নিশানা করেন মোদি। উনিশশো পঁচাত্তর সালে জরুরি অবস্থার প্রসঙ্গ টেনে এনে বেঁধেন গান্ধি পরিবারকে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘জরুরি অবস্থার সময় কি হয়েছিল? মানুষ জানেন কংগ্রেস আমলের গণতন্ত্রের কথা ৷’

কালো টাকা নিয়ে প্রতিশ্রুতি থেকে পদক্ষেপ। গত কয়েক বছরে প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রেই কংগ্রেসের সমালোচনার মুখে পড়ে মোদি সরকার। মঙ্গলবার, সংসদে ভাষণের সুযোগকে পুরোদমে কাজে লাগান প্রধানমন্ত্রী। মোদির নিশানা থেকে বাদ যাননি ইন্দিরা গান্ধিও। প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেন,  কালো টাকার মাধ্যমে সমান্তরাল অর্থনীতি, ইন্দিরা গান্ধিকেও বলেছিলেন যশবর্ধন ৷ খাড়গেজি আপনার এই উপলব্ধি কবে থেকে হয়েছে? বেনামি সম্পত্তি নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি হয়নি কেন? আপনাদের মনে হয়, আইন তৈরির থেকে আইন চেপে রাখায় বেশি লাভ ছিল?’

পাকিস্তানের মাটিতে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলে কংগ্রেস-সহ বিরোধীরা। বিজেপির সেই অস্বস্তি যে এখনও কাটেনি, মঙ্গলবার কংগ্রেসকে আক্রমণ করে তা বুঝিয়ে দিয়েছেন মোদি।

 ক্ষমতায় থাকাকালীন কংগ্রেস দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দিয়েছে, মঙ্গলবার ঘুরিয়ে ফিরিয়ে সেই অভিযোগই করেন মোদি। যদিও, বিরোধীদের সরকারের পাশে থাকার বার্তাও দিয়েছেন তিনি। কিন্তু, তীব্র আক্রমণের পর বিরোধীদের কতটা পাশে পাওয়া যাবে তা নিয়ে প্রশ্ন থাকছেই।

First published: 03:37:47 PM Feb 07, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर