মৃত দলীয় কর্মীর বাড়িতে সমবেদনা জানাতে চোপড়ায় রাজ্য বিজেপি-র প্রতিনিধি দল

Jul 10, 2017 04:41 PM IST | Updated on: Jul 10, 2017 05:12 PM IST

#চোপড়া: বিজেপি কর্মী খুনের অভিযোগে ধৃত দু’জনের সোমবার পাঁচ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দিল ইসলামপুর আদালত ৷ এদিকে মৃত দলীয় কর্মীর বাড়িতে সমবেদনা জানাতে এবং এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আজ চোপড়ায় যান রাজ্য বিজেপির তিন সদস্যের এক প্রতিনিধি দল।

প্রতিনিধি দলে ছিলেন বিজেপির রাজ্য সাধারন সম্পাদক প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় ৷ দলের উত্তরবঙ্গের বিধায়ক মনোজ টিজ্ঞা ও রাজ্য সম্পাদক রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও তাদের সঙ্গে ছিলেন বিজেপির জেলা সভাপতি নির্মল দাম-সহ জেলা নেতৃত্ব।

মৃত দলীয় কর্মীর বাড়িতে সমবেদনা জানাতে চোপড়ায় রাজ্য বিজেপি-র প্রতিনিধি দল

গত শনিবার উত্তর দিনাজপুরের চোপড়া থানার মাঝিয়ালি গ্রামপঞ্চায়েতের চান্দ্রাগছ গ্রামে বিজেপি - তৃণমূল সংঘর্ষে  মৃত্যু হয় অরেন সিং নামে এক বিজেপি কর্মীর। অভিযোগ, তৃণমূল কংগ্রেস আশ্রিত দুস্কৃতীরা গুলি করে খুন করে অরেন সিং-কে। এই ঘটনায় চরম উত্তেজনা ছড়ায় চোপড়ার কাচাকলি, মাঝিয়ালি, চান্দ্রাগছ-সহ বিস্তীর্ণ এলাকায়।

পরদিন রবিবার জেলা বিজেপির ডাকে ১২ ঘণ্টার উত্তর দিনাজপুর জেলায় সাধারণ ধর্মঘট পালন করা হয়। আজ, সোমবার রাজ্য বিজেপির পক্ষ থেকে মৃত কর্মী অরেন সিং-এর বাড়িতে আসে তিন সদস্যের এক প্রতিনিধি দল। বিজেপির এই প্রতিনিধি দল চোপড়া দলীয় কার্যালয় থেকে মৃত দলীয় কর্মীর বাড়িতে যেতে গেলে পুলিশ প্রথমে তাদের বাধা দেয়। পুলিশের সঙ্গে বচসাও বাঁধে বিজেপি নেতা কর্মীদের।

এরপর পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে বিজেপি নেতৃত্ব পৌছায় চান্দ্রাগছে মৃত দলীয় কর্মী অরেন সিং-এর বাড়িতে। তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথাবার্তা বলেন। ইতিমধ্যে গতকালই মাঝিয়ালি গ্রামপঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্য তথা মৃত বিজেপি কর্মী অরেন সিং-র ভাই ওমেন সিং ক্ষোভে দলত্যাগ করে বিজেপিতে যোগ দান করেন।

রাজ্য বিজেপি প্রতিনিধি দল তার সঙ্গেও কথা বলেন। প্রতিনিধি দলে থাকা রাজ্য বিজেপির সাধারন সম্পাদক প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে তাদের একটাই শব্দ " ছি! "। তিনি এও বলেন প্রকৃত দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে, নইলে তাদের এই ইউনিটের আন্দোলন লাগাতার চলবে। এদিকে বিজেপির প্রতিনিধি দলের চোপড়া আসার ঘটনাকে সাম্প্রদায়িক রাজনীতির অভিযোগ তুলে এক প্রতিবাদ মিছিল বের করে চোপড়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES