মোর্চার আন্দোলনের জেরে বন্ধ ৫ টি জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদন

Jul 12, 2017 08:25 PM IST | Updated on: Jul 12, 2017 08:28 PM IST

#দার্জিলিং: গোর্খাল্যান্ডের ইস্যুতে, প্রশাসনের ওপর চাপ বাড়াতে রণকৌশল বদলাচ্ছে মোর্চা। পাহাড়ে মোর্চা কর্মীদের মৃত্যুর ঘটনায় সিবিআই তদন্তের পাশাপাশি পাহাড় থেকে পুলিশ প্রত্যাহার নিয়েও চাপ বাড়াচ্ছে মোর্চা। গত শনিবার সোনাদায় মৃত মোর্চা কর্মীর দেহ নিয়ে মিছিল থেকে সেই দাবি তোলা হল। পাহাড়ে জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রে ঢুকে তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে। তার জেরে ৫ টি জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রেই বন্ধ হয়ে গেল বিদ্যুৎ উৎপাদন।

শনিবার সোনাদায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত হয়েছিলেন মোর্চা কর্মী অশোক তামাং। মঙ্গলবার তাঁর মৃত্যুর পর মৃত কর্মীর দেহ নিয়ে মিছিল করল গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা ৷

মোর্চার আন্দোলনের জেরে বন্ধ ৫ টি জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদন

কর্মীদের মৃত্যুতে সিবিআই তদন্তের দাবিতে সরব মোর্চা। পাহাড় থেকে অবিলম্বে পুলিশ প্রত্যাহারের দাবিও উঠল মিছিল থেকে। কর্মী মৃত্যুর ঘটনাকে হাতিয়ার করার এই কৌশল অবশ্য স্পষ্ট হয়েছিল আগেই।

লাগাতার বনধে পাহাড়ে খাদ্য সংকট রীতিমতো চরমে। বুধবারের পর বিদ্যুৎ সঙ্কটের মুখেও পড়তে চলেছেন পাহাড়বাসী। এদিনই পাহাড়ে পাঁচটি জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের কাজ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেল। এই ৫টি কেন্দ্রে মোট ৩৮৪ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হত। বুধবার জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভিতরে ঢুকে তাণ্ডব চালায় গোর্খাল্যান্ড আন্দোলনকারীরা। তারপরই প্রকল্পের কাজ বন্ধের সিদ্ধান্ত কর্তৃপক্ষের।

কালিম্পং লিম্বু জনজাতির বিশেষ বোর্ডের অফিসেও ভাঙচুর মোর্চা সমর্থকরা।যদিও এই ভাঙচুরের অভিযোগ স্বীকার করতে চায়নি মোর্চা। মঙ্গলবার রাতে মিরিকে পঞ্চায়েত বোর্ডের অফিসেও আগুন দিয়েছিলেন মোর্চা সমর্থকরা। আগামীদিনে এমনই জঙ্গি আন্দোলন আরও বাড়ানোরই ইঙ্গিত মিলছে।

RECOMMENDED STORIES