‘রাজ্য সরকার শান্তি চায়, সবার সঙ্গে কথা বলতে প্রস্তুত সরকার’, সর্বদল বৈঠকে বার্তা পার্থর

Jun 22, 2017 05:57 PM IST | Updated on: Jun 22, 2017 05:57 PM IST

#দার্জিলিং:  মোর্চার ক্ষোভের আগুন নেভাতে আলোচনার পথেই আস্থা রাজ্যের। বনধ ও হিংসার পথ ছেড়ে আলোচনার টেবিলে বসুক মোর্চা। আজ সর্বদলীয় বৈঠক থেকে ফের বার্তা দিল রাজ্য সরকার। কিন্তু, আন্দোলনের জিগির বজায় রাখতে জিটিএ থেকে পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিমল গুরুং-সহ মোর্চা সদস্যরা। গোর্খাল্যান্ডের দাবিকে সমর্থন জানিয়ে রাজনাথ সিংকে চিঠি পাঠিয়েছেন সিকিমের মুখ্যমন্ত্রী। ঘটনায় কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছে রাজ্য।

জ্বলছে পাহাড়। মোর্চার আন্দোলন থেকে আগুন-রক্তপাত-মৃত্যু। বাদ যায়নি কিছুই। কিন্তু, বৃহস্পতিবার সর্বদলীয় বৈঠক থেকে বিক্ষোভকারীদের ফের সহিষ্ণুতার বার্তাই দিল রাজ্য সরকার।

‘রাজ্য সরকার শান্তি চায়, সবার সঙ্গে কথা বলতে প্রস্তুত সরকার’, সর্বদল বৈঠকে বার্তা পার্থর

পার্থ চট্টোপাধ্যায় এদিন বলেন, ‘পাহাড়ে অশান্তি বন্ধ করতে হবে ৷ সম্পত্তির ক্ষয়ক্ষতি বন্ধ করতে হবে ৷ মুখ্যমন্ত্রী বারবার আাবেদন করেছেন ৷ কী কারণে এই আন্দোলন? আলোচনায় বসতে হবে মোর্চাকে ৷ পাহাড়ে রক্তপাত বন্ধ করতে হবে ৷’

শুধুমাত্র রাজ্য সরকারের পদক্ষেপেই কি পাহাড়ে শান্তিপ্রতিষ্ঠা হবে? পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মন্তব্য, হিংসায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন দার্জিলিংবাসীই। তাই, হিংসা ও বনধের রাজনীতি ছেড়ে এগিয়ে আসতে হবে মোর্চাকেও। শিক্ষামন্ত্রী এদিন বলেন, ‘নিজেরাই আক্রমণ করছেন ৷ পাহাড়বাসীকে বিপদে ফেলছে ৷ পাহাড়ের মানুষের জন্য খাদ্য পৌঁছচ্ছে না ৷ রাজ্য সরকার শান্তি চায় ৷ সবার সঙ্গে কথা বলতে প্রস্তুত সরকার ৷ আমরা সহিষ্ণুতার পরিচয় দিতে চাই ৷’

প্রথম বারের সর্বদলীয় বৈঠক নিয়ে আশাবাদী রাজ্য। লক্ষ্য, পাহাড়ে শান্তিশৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES