তিস্তা ও জলঢাকা নদীতে জলস্তর বেড়েছে, নতুন করে প্লাবনে বিপত্তি

Jul 10, 2017 05:49 PM IST | Updated on: Jul 10, 2017 05:49 PM IST

#আলিপুরদুয়ার: ডুয়ার্সে প্লাবন পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে। যদিও টানা বৃষ্টিতে ফালাকাটার কয়েকটি গ্রাম নতুন করে জলমগ্ন। তিস্তা ও জলঢাকা নদীতে জলস্তর বেড়েছে। রাতে ফের বৃষ্টি হলে অবস্থার অবনতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। জল নামতেই এই দুই নদীপাড়ে কয়েকটি এলাকায় ভাঙন শুরু হয়েছে। আতঙ্কে ঘরবাড়ি ছাড়ছেন মানুষ। প্রশাসনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ স্থানীয় বাসিন্দাদের।

জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ারে কয়েকদিন ধরে অবিরাম বৃষ্টিতে ডুয়ার্সে শনিবার রাত থেকে বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। রবিবারের পর থেকে পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়। গয়েরকাটা, বানারহাট ও বিন্নাগুড়িতে জমা জল অনেকটাই নেমে গিয়েছে। তবে ভুটান পাহাড়ে বৃষ্টির জেরে জল বাড়ল তিস্তা, জলঢাকায়। ব্যারাজ থেকে দু’হাজার কিউমেক জল ছাড়া হয়েছে। ফলে প্লাবিত অন্য কয়েকটি এলাকা।

তিস্তা ও জলঢাকা নদীতে জলস্তর বেড়েছে, নতুন করে প্লাবনে বিপত্তি

নতুন করে প্লাবনে বিপত্তি

- আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটায় জয়চাঁদপুর গ্রামে ঢুকে পড়ে বীরকিটি নদীর জল

- দোকান, ঘর বাড়ি, চাষের জমি জলমগ্ন

- ধূপগুড়ির কয়েকটি ওয়ার্ড জলমগ্ন

- দোমোহনী-বাংলাদেশ সীমান্তে অ্যালার্ট জারি সেচ দফতরের

- তিস্তার জল বেড়ে ময়নাগুড়ির পদমতীতে মাটির বাঁধে ভাঙন

- ভাঙনের কবলে তিস্তার মিলন পল্লি, মানতাদড়ি এলাকাও

- জলঢাকায় জলস্ফীতিতে রামসাই এলাকায় ভাঙন

- বন্ধ হয়ে যায় এশিয়ান হাইওয়ের দ্বিতীয় সেতু তৈরি কাজ

- ডুডুয়া, গিলান্ডি, করলা নদীর ভাঙন

- ঝালটিয়া এলাকায় ভাঙনে ৫০ বিঘা জমি নদীগর্ভে।

ভাঙনের ফলে আতঙ্কে বাড়িঘর ছাড়ছেন বাসিন্দারা। প্রশাসনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়ার অভিযোগ উঠছে। যদিও দায় এড়াচ্ছে প্রশাসন। সোমবার দিনভর আকাশ মেঘলা ছিল জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ারে। নতুন করে প্লাবন পরিস্থিতিতে সরকারিভাবে নজরদারির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES