ঘরে বাইরে চাপের মুখে সর্বদলীয় বৈঠকে মোর্চা

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 29, 2017 01:12 PM IST
ঘরে বাইরে চাপের মুখে সর্বদলীয় বৈঠকে মোর্চা
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 29, 2017 01:12 PM IST

#দার্জিলিং: পাহাড়ে ঘরে বাইরে চাপের মুখে মোর্চা। মরিয়া হয়ে তাই বাহিনীকে উসকানি দেওয়ার পথেই হাঁটছে তারা। রণকৌশল স্থির করতে ফের পাহাড়ে সর্বদলীয় বৈঠকের ডাক দিয়েছে ৷ পাহাড়ের অন্যান্য রাজনৈতিক দল চাপ বাড়ানোয় নজিরবিহীনভাবে দার্জিলিং ছেড়ে কালিম্পঙেই হতে চলেছে বৈঠক।

বৃহস্পতিবার মোর্চার ডাকে বিজেপি, জিএনএলএফ, এবিজিএল, জাপ সহ পাহাড়ে সমস্ত দল যোগ দিল বৈঠকে ৷ এদিনের কর্মসূচি শুরুর আগেই কালিম্পং থানার সামনে মুখে কালো কাপড় বেঁধে ধর্ণায় সামিল হন মোর্চাকর্মীরা ৷

শক্তি জাহির করতে গতকাল মহিলা-শিশুদের ঢাল করেই চলে সশস্ত্র মিছিল। রাজ্যের কৌশলে থমকে পাহাড়ের আন্দোলন। ফলে, পৃথক রাজ্যের জিগির তুলে কার্যত বাঘের পিঠে চড়েছেন বিমল গুরুংরা। সেই চাপ থেকে বেরিয়ে আসতে এবার উসকানি দেওয়ার পথই বেছে নিল মরিয়া মোর্চা।

১৭ জুন সিংমারিতে গুলিতে নিহত হন তিন পাহাড়বাসী। কিন্তু, তা থেকে তেমনভাবে রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে পারেনি মোর্চা। তাই এবার ময়দানে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে মহিলা ও শিশুদের। বুধবার, সোনাদায় নারী ও শিশুদের সামনে রেখেই চলে সশস্ত্র মিছিল। বুধবার দুই মোর্চা নেতাকে পুলিশ আটক করতেই শুরু হয় দার্জিলিং থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ।

ঘরেও প্রবল চাপের মুখে মোর্চা।

- আন্দোলনের রাশ কার হাতে থাকবে তা নিয়ে মোর্চার ওপর চাপ বাড়াচ্ছে জিএনএলএফ, এবিজিএল, জাপ,সিপিআরএম-সহ পাহাড়ের অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলি

- রণকৌশল স্থির করতে বৃহস্পতিবার সর্বদলীয় বৈঠকের আহ্বান জানানো হয়েছে

- চাপে পড়ে দার্জিলিঙের বদলে কালিম্পঙে বৈঠক ডাকতে বাধ্য হয়েছে মোর্চা

সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস করে মোর্চার এমন আন্দোলন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে রাজ্য সরকার।

আলোচনার পথ খোলা রেখেছে রাজ্য। কিন্তু, নারাজ মোর্চা। বিমল গুরুংদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনার প্রস্তাবে কান দিচ্ছে না কেন্দ্রও। (পাহাড়ের স্কুল-কলেজে পড়াশোনার পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংকে চিঠি দিয়েছেন পড়ুয়ারাও।) এবার কোন পথে এগোবে পাহাড়ের আন্দোলন? দ্বিধায় মোর্চা।

First published: 01:12:00 PM Jun 29, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर