পাহাড়ে আরও জোরদার আন্দোলনের হুঁশিয়ারি মোর্চার !

Jul 15, 2017 06:36 PM IST | Updated on: Jul 15, 2017 06:40 PM IST

#দার্জিলিং:  পাহাড়ে আন্দোলন জোরদার করার হুঁশিয়ারি গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার। চল্লিশ কোম্পানি আধা সেনা পাঠালেও আন্দোলনে ভাঁটা পড়বে না বলে দাবি। এবার দিল্লিতেও আমরণ অনশনের পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। বিজেপির ইস্তাহারে ছোট রাজ্যের প্রসঙ্গ টেনে, কেন্দ্রের ওপরেও চাপ বাড়ালেন বিমল গুরুংরা। উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে আন্দোলনে মাওবাদী মদতের অভিযোগও।

আগামী সোমবার রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। সেদিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে রাজি মোর্চা। কিন্তু তারপর পৃথক গোর্খাল্যান্ড নিয়ে কেন্দ্র বা রাজ্যের তরফে কোনও সদুত্তর না পেলে, আন্দোলন আরও জোরদার করার হুঁশিয়ারি দিল গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা।

পাহাড়ে আরও জোরদার আন্দোলনের হুঁশিয়ারি মোর্চার !

Photo: PTI

পাহাড়ে আরও আধা সেনা

- (হাইকোর্টের নির্দেশে) রবিবার পাহাড়ে আসছে আরও চার কোম্পানির আধা সেনা

- দার্জিলিং সদরে মোতায়েন থাকবে ২ কোম্পানি

- ১ কোম্পানি করে আধা সেনা থাকবে কার্শিয়ং ও কালিম্পঙে

সে বিষয়ে অবশ্য চিন্তিত নয় মোর্চা। উল্টে তাঁদের হুঁশিয়ারি চল্লিশ কোম্পানির আধা সেনা পাঠালেও আন্দোলনে ভাঁটা পড়বে না।

যদিও এদিনই দার্জিলিঙে মোর্চার বিশাল মিছিলের মাঝে আটকে পড়ে সেনা বাহিনীর গাড়ি। তাঁদের ঘিরেই তোলা হয় গোর্খাল্যান্ডের স্লোগান।

পাহাড় পরিস্থিতি নিয়ে হাইকোর্টে পেশ করা রিপোর্টে রাজ্য জানায়, অশান্তির পিছনে হাত রয়েছে নেপালের মাওবাদীদের। এই অভিযোগ অবশ্য অস্বীকার করেছে মোর্চা।

রাজ্যের বিরুদ্ধে আন্দোলন জারি রাখলেও, এবার কেন্দ্রের ওপর চাপ বাড়াতে নয়া কৌশল মোর্চার। দিল্লিতেও আমরণ অনশনের পরিকল্পনা নিচ্ছে তারা। সূত্রের খবর, গোর্খাল্যান্ড কোঅর্ডিনেশন কমিটির প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলে এই নির্দেশ দিয়েছেন বিমল গুরুং। ১৮ জুলাই কো-অর্ডিনেশনের বৈঠকে এবিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। যদিও কেন্দ্রের ওপরই তাঁদের ভরসা অটুট বলে দাবি মোর্চার।

তবে হিংসার পথ থেকে যে মোর্চা সরে আসছে না তার প্রমাণ মিলল রবিবারও। এদিন তাগদায় পঞ্চায়েত অফিসে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে তাদের বিরুদ্ধে। রাস্তা অবরোধ করা হয় বীরপাড়ায়।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES