‘মরে গেলেও গোর্খাল্যান্ডের দাবি ছাড়ব না’, হুঙ্কার বিমল গুরুয়ের

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 23, 2017 08:08 PM IST
‘মরে গেলেও গোর্খাল্যান্ডের দাবি ছাড়ব না’, হুঙ্কার বিমল গুরুয়ের
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 23, 2017 08:08 PM IST

#দার্জিলিং: পাহাড় নিয়ে রাজ্যের সঙ্গে চরম সংঘাতে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। শুক্রবার জিটিএ থেকে পদত্যাগ করলেন মোর্চা সভাসদরা। তবে জিটিএ নির্বাচন করতে দেওয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি মোর্চার। সিংমারি অভিযানে ৩ সমর্থকের মৃত্যুতেও পুলিশর দিকেই আঙুল মোর্চা নেতৃত্বের। মোর্চা প্রধানের ঘোষণা, গোর্খাল্যান্ড ছাড়া আর কিছুই মানবেন না পাহাড়বাসী।

এদিন মোর্চা প্রধান বিমল গুরুং বলেন, ‘৪৩ জন GTA থেকে পদত্যাগ করেছেন ৷ লড়াই করেই যা করার করব ৷ রাজ্য ও কেন্দ্রের সঙ্গে যা চুক্তি হয়েছে ৷ সব চুক্তি খারিজ করা হবে ৷ ২৯ তারিখ সর্বদল বৈঠক ৷ পরবর্তী রণকৌশল ঠিক হবে বৈঠকে ৷ মরে গেলেও ছাড়ব না ৷’

গোর্খাল্যান্ড ছাড়া আর কিছুতেই শান্ত হবে না পাহাড়। রাজ্যের সঙ্গে চরম সংঘাতের পথে যাওয়ার বার্তা দিয়েই ঘোষণা মোর্চা প্রধানের। এদিনই জিটিএ- থেকে পদত্যাগ করেন ৪৩ জন গোর্খা সভাসদ। তবে পদ ছাড়লেও জিটিএ-তে নির্বাচন করা নিয়েও রাজ্যকে হুঁশিয়ারি মোর্চা প্রধানের।

অগস্টের প্রথমে জিটিএ-র শপথগ্রহণ হবে বলে ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নির্বাচন করতে না দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়ে সেই ঘোষণাকেই কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন মোর্চা প্রধান। সিংমারি অভিযানে ৩ মোর্চা সমর্থকের মৃত্যু নিয়েও সুর চড়িয়েছেন মোর্চা প্রধান।  বিমল গুরুঙের দাবি,  ‘আমরা গুলি চালাইনি ৷ পুলিশের গুলিতে ৩ জন শহিদ ৷ ডিএম, এসপি, রাজ্যকেই দায়িত্ব নিতে হবে ৷ আইজি গুলি চালানোর নির্দেশ দেন ৷ আমাদের কাছে প্রমাণ আছে ৷ পুলিশ টিয়ার গ্যাস ছোড়ে ৷ তা থেকে বাঁচতে পাথর ছুড়তে বাধ্য হন মোর্চা সমর্থকরা ৷’

আগামী দিন গোর্খাল্যান্ড দাবিতে সামনে রেখে একগুচ্ছ কর্মসূচি নিচ্ছে মোর্চা।

২৭ জুন জিটিএ-র চুক্তিপত্র পোড়ানো হবে

প্রতিদিন গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে মিছিল, বিক্ষোভ

২৯ জুন ফের মোর্চার ডাকে সর্বদল

সেখানে পরবর্তী আন্দোলনের কর্মসূচি স্থির হবে

অনির্দিষ্টকালের জন্য বনধও চলবে

গোর্খাল্যান্ড নিয়ে মোর্চার প্রাথমিক উদ্যোগে সাড়া দেয়নি কেন্দ্র সাড়া। তারপরও পাহাড় নিয়ে রাজ্য সরকার নরম অবস্থান নেওয়ার পরেও কেন সুর চড়াচ্ছে মোর্চা? পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘জিটিএ-র অডিট হবে তাই ভয় পেয়েছে ৷ নিজেদের দুর্নীতি ঢাকতে হুঙ্কার দিচ্ছে ৷’

এরই মধ্যে অন্যসুর বামেদের। ‘পাহাড়ে নিঃশর্ত ত্রিপাক্ষিক বৈঠক ডাকতে হবে’,দাবি সিপিএমের অশোক ভট্টাচার্যের ৷

এদিন পালতেবাসে বৈঠক করে মিছিল করে মোর্চা। মিছিল থেকেও ঘনঘন গোর্খাল্যান্ডের দাবি উঠেছে। পাহাড়ে নিজেদের রাশ ধরে রাখতে এখন এই আবেগই একমাত্র অস্ত্র বিমল গুরুংদের।

First published: 07:49:54 PM Jun 23, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर