মানসিক 'ভারসাম্যহীন' মা, ছেলেকে নিয়ে ৩ মাস ধরে হাসপাতালই ঠিকানা

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Mar 29, 2017 09:08 AM IST
মানসিক 'ভারসাম্যহীন' মা, ছেলেকে নিয়ে ৩ মাস ধরে হাসপাতালই ঠিকানা
Photo : AFP
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Mar 29, 2017 09:08 AM IST

#বেলদা: অভিযোগ, মা মানসিক ভারসাম্যহীন। কিন্তু মায়ের দায়িত্বপালনে কোথাও খামতি নেই তাঁর। তিন মাস আগেই বেলদা গ্রামীণ হাসপাতালে এক পুত্র সন্তানের জন্ম দেন রিঙ্কি গিরি। স্বামী, পরিবার, ঠিকানা কিছুই জানা নেই তাঁর। আপাতত এই হাসপাতালই তাঁদের একমাত্র ঠিকানা। কিন্তু কতদিন এভাবে হাসপাতালে ঠাঁই পাবেন রিঙ্কিরা? উত্তর অধরা।

স্বামী, পরিবার, ঠিকানা কিছুই জানা নেই। নিজেই বলছেন, স্বামী তাঁর কোনও খোঁজ নেন না। আপাতত নিজের তিন মাসের সন্তানকে আঁকড়ে নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখছেন রিঙ্কি গিরি। কে এই রিঙ্কি? গত ৮ জানুয়ারি পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদা রেলস্টেশনে যন্ত্রণায় কাতরাতে দেখে এক আশাকর্মী তাঁকে উদ্ধার করে বেলদা গ্রামীণ হাসপাতালে ভরতি করেন। নাম বলতে পারলেও ঠিকানা বা বাড়ির লোকের পরিচয় দিতে পারেননি রিঙ্কি। পরদিনই এক পুত্রসন্তানের জন্ম দেন রিঙ্কি। চাইল্ডলাইন শিশুটিকে নিতে এলে বাধা দেন রিঙ্কি। সেই থেকে এই হাসপাতালই তাঁর নতুন ঠিকানা। কিন্তু প্রশ্ন হল, কতদিন এভাবে হাসপাতালে থাকবেন রিঙ্কি? এভাবে তো কোনও হাসপাতাল কাউকে রাখতে পারে না।

রিঙ্কির দাবি, কাজ করে নিজেই সন্তানকে মানুষ করবেন তিনি। তাই অচেনা মানুষ, সংবাদমাধ্যমের ভয়ে সারাদিনই নিজেকে লুকিয়ে রাখেন তিনি। পাছে কেউ তাঁর সন্তানকে চুরি করে নেয়। সোমবার লোকসভায় পাশ হয়েছে মানসিক স্বাস্থ্য আইন, ২০১৭। নতুন বিল অনুযায়ী ৩ বছর পর্যন্ত শিশুকে মায়ের থেকে আলাদা করা যাবে না। তাই প্রশ্ন উঠছে, রিঙ্কি ও তাঁর সন্তানের ভবিষ্যত নিয়ে।

First published: 09:08:43 AM Mar 29, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर