‘জালিয়াত’ ৪২০ এবার বাতিলের খাতায় !

Feb 17, 2017 04:01 PM IST | Updated on: Feb 17, 2017 04:09 PM IST

#আমেদাবাদ: বাতিল হতে চলেছে রেজিষ্ট্রেশন নম্বর ‘০৪২০’ ৷ সম্প্রতি আমেদাবাদ রিজিওনাল ট্রান্সপোর্ট অফিস এই বিষয়ে নিয়ে আলোচনা করছে ৷ এর মূল কারণ হচ্ছে যাদের নামে এই নম্বরটি রেজিষ্ট্রার করা হয়েছে তাদের অনেকেই অভিযোগ জানিয়েছে যে যখনই তারা ওই নম্বরের গাড়ি নিয়ে বাইরে যান তখন অনেকেই তাদের নিয়ে হাসি ঠাট্টা করে ৷

ভারতীয় দণ্ডবিধি অনুযায়ী, ৪২০ ধারায় প্রতারণার বা জালিয়াতির মামলা দায়ের করা হয় ৷ তাই সাধারণত ৪২০ নম্বর দিয়ে মানুষকে প্রতারক হিসেবে চিহ্নিত করা হয় ৷

‘জালিয়াত’ ৪২০ এবার বাতিলের খাতায় !

আমেদাবাদের বাসিন্দা রশ্মিকান্ত দোশি তিন বছর আগে একটি Hyundai I10 গাড়ি কিনেছিলেন ৷ সেই সময় তাকে জিজ্ঞাসা করা হয় যে সে নিজের পছন্দের নম্বর নিতে চায় কিনা ? রশ্মিকান্ত জানান যে এই বিশয়ে তার কোনও পছন্দের কোনও ব্যপার নেই ৷ সিরিয়াল অনুযায়ী যে নম্বর আসবে তিনি সেই নম্বরই নেবেন ৷

ভাগ্যচক্রে দোশির গাড়ির নম্বর দেওয়া হয় GJ 01 RC 0420 ৷ সেই সময় বিষয়টি তার নজরে পড়েনি ৷ কিন্তু কয়েকদিন পর থেকেই দোশি ও তার পরিবারের সদস্যরা বুঝতে পারেন যে তাদের গাড়িতে কোনও একটা কিছু সমস্যা রয়েছে ৷ কারণ যখনি তারা সিগন্যালে গাড়ি থামায়, আশপাশের লোকজন তাদের গাড়ির দিকে তাকিয়ে হাসাহাসি করে ৷

দোশি জানান, যে তখন তারা বুঝতে পারেন গাড়ির নম্বরের কারণে মানুষের কাছে হাসির বিষয় বস্তু হয়ে উঠেছেন তারা ৷ নিউজ১৮কে দোশি আরও জানান যে এমনও হয়েছে এক ব্যক্তি তাকে এসে জিজ্ঞাসা করেছে কেন তারা ওই নম্বর নিয়েছে ?

এই পুরো বিষয়টি নিয়ে তারা এতটাই বিরক্ত হয়ে উঠেন যে গাড়িটি খুব প্রয়োজন না হলে ব্যবহার করাি বন্ধ করে দিয়েছিল ৷ এমনকি RTO অফিসে গাড়ির নম্বর বদলে দেওয়ার জন্য আবেদনও জানিয়েছিল কিন্তু সেখান থেকে জানানো হয় এটার জন্য অনেক সময় লাগবে ৷ পাশাপাশি এর জন্য বাড়তি ৫০ হাজার টাকা লাগবে ৷ এরপর গাড়ি বিক্রি করতে চাইলেও কোউ গাড়ির নম্বরের জন্য সেটি কিনতে ইচ্ছুক নয় ৷

বেশিরভাগ মানুষই এই নম্বরটি নিতে অস্বীকার করে থাকেন ৷ কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হল যে এমনও কয়েকজন আছে যারা বাড়তি টাকা দিয়ে এই নম্বরটি নেন ৷ এই মুহূর্তে আমেদাবাদে প্রায় ৩৫০ জন রয়েছে যাদের গাড়ির রেজিষ্ট্রেশন নম্বর হচ্ছে ৪২০ ৷

RTO অফিস থেকে জানানো হয়েছে, ‘হ্যাঁ এটা সত্যি যে এই বিষয়ে আমাদের কাছে বেশ কয়েকটি অভিযোগ এসেছে ৷  আমরা এই বিষয়টি খতিয়ে দেখছি ৷ যাদের এই নম্বরটি দেওয়া হয়েছে তাদের সঙ্গেও কথা বলছি ৷ সমস্ত দিক খতিয়ে দেখার পর আমরা রাজ্য সরকারের কাছে নম্বরটি বাতিল করার জন্য আবেদন পাঠাব ৷’

আধিকারিকরা জানিয়েছে, যদি সরকার অনুমোদন দেয় ও ০৪২০ রেজিষ্ট্রেশন নম্বর বাতিল করা হয় তাহলে দেশের মধ্যে আমেদাবাদই প্রথম শহর হবে এই ক্ষেত্রে ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES