নারিন-লিন ‘ডাবল’ ধামাকায় ফের ধরাশায়ী বিরাটরা

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:May 07, 2017 10:41 PM IST
নারিন-লিন ‘ডাবল’ ধামাকায় ফের ধরাশায়ী বিরাটরা
Sunil Narine of Kolkata Knight Riders celebrates his Fifty during match 46 of the Indian Premier League 2017 between the Royal Challengers Bangalore and the Kolkata Knight Riders held at the M.Chinnaswamy Stadium in Bangalore. Photo Courtesy : BCCI
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:May 07, 2017 10:41 PM IST

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর: ১৫৮/৬ ( ২০ ওভার)

কলকাতা নাইট রাইডার্স: ১৫৯/৪ ( ১৫.১ ওভার)

২৯ বল বাকি থাকতেই ৬ উইকেটে জয়ী কলকাতা নাইট রাইডার্স

#বেঙ্গালুরু: পরপর দু’ম্যাচ হেরে আচমকাই কিছুটা বেকায়দায় পড়ে গিয়েছিল টিম কেকেআর ৷ প্লে অফে ওঠাটা কিছুতেই নিশ্চিত করে উঠতে পারছিলেন না গম্ভীর অ্যান্ড কোম্পানি ৷ কিন্তু দ্রুত আবার জয়ের অভ্যাসে ফিরতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ ছিল বেগুনী শিবির ৷ রবিবার চিন্নাস্বামীতে সে কাজে সফল নাইটরা ৷ অ্যাওয়ে ম্যাচে দুর্দান্ত জয় ছিনিয়ে নিয়ে প্লে অফ নিশ্চিত করলেন গম্ভীররা ৷

এদিন কেকেআর-এর জয়ের মূল কাণ্ডারি অবশ্যই দুই ওপেনার ক্রিস লিন (৫০) এবং সুনীল নারিন (৫৪) ৷ দু’জনের জোড়া অর্ধশতরানের সৌজন্যে এদিন ম্যাচ জিততে বিশেষ সময় লাগেনি নাইটদের ৷ তবে অবশ্যই সুনীল নারিনের কথা আলাদা করে বলতে হয় ৷ এবারের আইপিএলে ওপেনার হিসেবে তাঁকে খেলিয়ে বেশ কয়েক ম্যাচে সাফল্য পেয়েছে কেকেআর ৷ মাঝের বেশ কয়েকটা ম্যাচে রান না পেলেও এদিন চিন্নাস্বামীতে ফের রুদ্রমূর্তি ধারণ করলেন ক্যারিবিয়ান তারকা ৷ শুধু এবারেরই নয়, আইপিএল-এর ১০ বছরের ইতিহাসে দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরিটিও এই ম্যাচে সেরে ফেললেন নারিন। মাত্র ১৫ বলে এদিন নিজের হাফ-সেঞ্চূরি পূর্ণ করলেন তিনি। যখন থামলেন তখন ৬টা বাউন্ডারি ও ৪টে ওভার বাউন্ডারি-সহ নারিনের নামের পাশে লেখা হয়ে গিয়েছে ১৭ বলে ৫৪ রান। অন্যদিকে চোট সারিয়ে ফিরেই দুর্দান্ত ব্যাটিংটা করলেন আরেক ওপেনার ক্রিস লিনও ৷ পবন নেগির বলে বোল্ড হওয়ার আগে করে গেলেন ২২ বলে ৫০ রান ৷ এরপর গ্র্যান্ডহোম (৩১) এবং গম্ভীর (১৪) অল্প রানে আউট হলেও ম্যাচ জিততে বিশেষ সমস্যা হয়নি কিং খানের দলের ৷

টস জিতে এদিনও প্রত্যাশামতোই প্রথমে আরসিবি-কে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন কেকেআর অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর ৷ দিনের প্রথম বলেই উমেশ যাদবের বলে ফিরে যান ক্রিস গেইল (০) ৷ এরপর অধিনায়ক কোহলি (৫)-ও উমেশের শিকার ৷ দলের আরেক তারকা এবি ডেভিলিয়ার্সও এদিন ১০ রানের বেশি করতে পারেননি ৷ কিন্তু আরসিবি-র রানকে ভদ্রস্থ জায়গায় নিয়ে যাওয়ার পিছনে দলের দু’জন ব্যাটসম্যানকেই কৃতিত্ব দিতে হবে ৷ একজন ওপেনার মনদীপ সিং (৫২) এবং অন্যজন ট্র্যাভিস হেড (৭৫ নট আউট) ৷

১৫৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা একেবারেই কঠিন ছিল না নাইটদের কাছে ৷ আর শাহরুখের দলের দুই ওপেনারের গোলায় এদিন আরও একবার ধরাশায়ীই হতে হল বিরাটদের ৷

ধরাশায়ী কোহলি ৷ ধরাশায়ী তাঁর দলও ৷ Photo: BCCI ধরাশায়ী কোহলি ৷ ধরাশায়ী তাঁর দলও ৷ Photo: BCCI

First published: 09:37:11 PM May 07, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर