মুকুল বনাম দিলীপ, গেরুয়া শিবিরে নয়া দ্বন্দ্ব!

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Nov 07, 2017 07:43 PM IST
মুকুল বনাম দিলীপ, গেরুয়া শিবিরে নয়া দ্বন্দ্ব!
mukul and dilip
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Nov 07, 2017 07:43 PM IST

 #কলকাতা: প্রথমেই ধাক্কা। মুকুল রায়ের কর্মসূচির অর্ধেকই ছেঁটে দিলেন দিলীপ ঘোষ। রাজ্যের অর্ধেক জেলায় সফর করবেন মুকুল। বাকি জেলাগুলোতে যাবেন দিলীপ নিজে। সোমবার মুরলীধর লেনের বৈঠকেই রাজ্যের সব জেলায় সফরের কথা জানিয়েছিলেন মুকুল। যা নিয়ে খুব একটা সন্তুষ্ট হতে পারেননি দিলীপ ঘোষ। একদিনের মধেই দ্রুত বদলাল পরিস্থিতি। আপাতত রাজ্য বিজেপি সভাপতির প্রস্তাবই মেনে নিতে হচ্ছে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া মুকুলকে।

সোমবার মুরলীধর লেনে মুকুল-দিলীপ বৈঠকের এক্সক্লুসিভ কথোপকথন তুলে ধরেছিল ইটিভি নিউজ বাংলা। সদ্য দলে আসা মুকুলকে নিয়ে রাজ্য বিজেপির অস্বস্তিও প্রকাশ্যে চলে আসে। দেখে নেওয়া যাক কি আলোচনা হয়েছিল বৈঠকে?

মুকুল বলেন,

১০ তারিখ কলকাতায় সভার পরে গুজরাতে প্রচারে যাব। ফিরে জেলা সফরে যেতে চাই। একেবারে পাহাড় থেকে জঙ্গল - সব জায়গায় যাব৷

দিলীপের বক্তব্য,

পার্টির বিভিন্ন আঞ্চলিক সভাগুলো হচ্ছে। আপাতত সেখানেই যান। পরে ওটা দেখা যাবে ৷

মুকুলের উত্তর,

না-না পরিকল্পনা তৈরিই আছে। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গেও কথা বলেছি। আপনাকে পুরো প্ল্যানটাই দেখাব ৷

প্রথম রাউন্ডে অবশ্য এগিয়ে থাকলেন দিলীপই। মুকুলের তরফে জেলা সফরের যে পরিকল্পনা জমা পড়েছিল, তার অর্ধেকই ছেঁটে দিলেন রাজ্য সভাপতি। রাজ্যের অর্ধেক জেলায় সফর করেই সন্তুষ্ট থাকতে হবে মুকুল। বাকি জেলাগুলোতে সফরে বেরোবেন দিলীপ নিজেই।

সোমবারই রাজ্য বিজেপির দফতরে বৈঠকে মুকুল স্পষ্ট করেছিলেন, তিনি নিজের মতো করেই চলবেন। যাতে রাজ্য বিজেপির অস্বস্তি আরও বাড়ে। মুকুলের ব্যাপারে আপত্তি জানিয়ে সংঘেরও দ্বারস্থ হয়েছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। তারপরই মুকুলের প্রস্তাব ছেঁটে ফেলে নিজের গুরুত্ব প্রমাণের চেষ্টা করলেন দিলীপ ঘোষ। যদিও প্রকাশ্যে দিলীপের কথায় বিতর্ক এড়ানোরই চেষ্টা।

সাংবাদিকদের রাজ্য বিজেপি সভাপতি বলেন, ১০ নভেম্বরের সমাবেশ নিয়ে কথা। মুকুল রায়ের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। ১০ তারিখের সভায় একাধিক দল থেকে বিজেপি-তে যোগ দেবেন বহু মানুষ। সে বিষয়েই আলোচনা হয়েছে। অবস্থা বুঝে কৌশলী অবস্থান নিচ্ছেন মুকুলও।

মুকুল বনাম দিলীপ। একদা তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতাকে নিয়ে বিজেপি রাজ্য নেতৃত্বের অস্বস্তিু? বিতর্ক মুছে ফেলে কবে সংগঠনের কাজে ঝাঁপানো যাবে? অনিশ্চয়তা বাড়ছে বিজেপি নেতা-কর্মীদের মধ্যে।

First published: 07:43:50 PM Nov 07, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर