'মঞ্জু বসুকে প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন আমার ভুল হয়েছিল', ক্ষমা চাইলেন মুকুল রায়

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 11, 2018 12:00 PM IST
'মঞ্জু বসুকে প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন আমার ভুল হয়েছিল', ক্ষমা চাইলেন মুকুল রায়
Mukul Roy
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 11, 2018 12:00 PM IST

 #কলকাতা: তাঁর কথাতেই মঞ্জু বসুকে দল প্রার্থী করেছিল। মঞ্জু বসু সরে দাঁড়ানোয় সেই ভুলের দায়িত্ব তিনি নিচ্ছেন। ভুল স্বীকার করে মন্তব্য বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের। সেই সঙ্গে মঞ্জু বসুর ওপর তৃণমূলের চাপ তৈরির অভিযোগও তুলেছেন বিজেপি নেতা। সোদপুরের জন জাগরণ যাত্রা মঞ্চ থেকে ক্ষমাপ্রার্থী মুকুল ৷

নোয়াপাড়ায় প্রাক্তন তৃণমূল প্রার্থী মঞ্জু বসুকে প্রার্থী করে চমক দিতে চেয়েছিল বিজেপি। তাঁকে প্রার্থী করতে সক্রিয় হন মুকুল রায়। বিজেপির একটি অংশের আপত্তি সত্ত্বেও মঞ্জুতে অনড় ছিলেন মুকুল ৷ অন্য দল থেকে জনপ্রিয় নেতা-কর্মীদের ভাঙিয়ে আনায় জোর দেন তিনি ৷ এভাবেই সাফল্য মিলবে বলেও আশ্বস্ত করেন ৷ দফায় দফায় মঞ্জু বসুর সঙ্গে কথা হয় ৷ মঞ্জু নিশ্চিত বলে দলকেও আশ্বস্ত করেছিলেন মুকুল ৷ দল ভাঙানোর খেলায় আপত্তি ছিল দিলীপদের ৷ কিন্তু এরপর মঞ্জু বসুর পদক্ষেপে বিজেপির মুখ পোড়ার সঙ্গ সঙ্গে ঘরে বাইরে মুখ দেখানো দায় মুকুলের ৷

সেই প্রসঙ্গেই মঞ্জু বসু প্রার্থী করা নিয়ে সর্বসমক্ষে ভুল স্বীকার করে মুকুল বলেন, 'নোয়াপাড়ায় প্রার্থী নির্বাচনে ভুল হয়েছে ৷ মঞ্জু বসুকে প্রার্থী নির্বাচন আমার ভুল ছিল ৷ জনগণের কাছে ভুল স্বীকার করে নিচ্ছি ৷ মঞ্জু বসু বলেছিলেন স্বামীর মৃত্যুর বিচার পাননি ৷ দল তাঁকে ন্যায্য সম্মান দেয়নি ৷ তাঁর কথাতেই প্রার্থী করা হয়েছিল ৷ কিন্তু তৃণমূলের চাপে পড়ে সরে দাঁড়ান ৷ নোয়াপাড়া কেন্দ্রে বিজেপি প্রচুর ব্যবধানে জিতবে বলেই আমার বিশ্বাস ৷ '

মুকুলের স্ট্র্যাটেজির ব্যর্থতার পর শেষ পর্যন্ত দিলীপের মতামতকে গুরুত্ব নিয়েই প্রার্থী হন সন্দীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বভাবতই মুকুলের ব্যর্থতা অস্ত্র তুলে দিয়েছে বিরোধীদের হাতে।

দলত্যাগী মুকুলের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি তৃণমূল নেতৃত্ব। তৃণমূল মহাসটিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘মঞ্জু বসুকে কেউ ভয় দেখাচ্ছে না ৷ কাঁচরাপাড়ার বাবু যে দলে গিয়েছেন ৷ সেই দলের সংগঠনটা ভাল করে করুন ৷ এই সব গিমিক করে কোনও লাভ হবে না ৷ মঞ্জু বসুর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপর আস্থা আছে ৷’

মুকুলকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকও ৷ তিনি বলেন, ‘মঞ্জু বসু ছক্কা মেরে বিজেপিকে শুইয়ে দিয়েছে ৷ মুকুলের সঙ্গে দিলীপের লড়াই ৷ বিশ্ব বাংলা নিয়ে মন্তব্য করে থাপ্পড় খেয়েছিল ৷ আবার একটা থাপ্পড় খেল ৷ মুকুল রায় অসত্যের উপর দাঁড়িয়ে রাজনীতি করে ৷ পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর ওকে বাড়ির ছাদে তুলে দেব ৷’

কৌশল ভেস্তে যাওয়ায় মুকুলের গ্রহণযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। সামনে চলে আসছে দুই শিবিরের টানাপোড়েনও। সাফল্য দেওয়ার চাপ বাড়ছে মুকুলের ওপর। মঞ্জু বসুর ঘটনায় শিক্ষা নিয়ে কী কৌশল বদলাবে বিজেপি? গুরুত্ব বাড়িয়ে মুকুলের থেকে এগিয়ে যাবেন দিলীপ ঘোষ? সেই সম্ভাবনা অনেকটাই স্পষ্ট।

First published: 12:00:01 PM Jan 11, 2018
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर