ডাইনি অপবাদে বৃদ্ধার মাথা কাটল এক যুবক !

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Feb 10, 2017 04:09 PM IST
ডাইনি অপবাদে বৃদ্ধার মাথা কাটল এক যুবক !
Photo : AFP
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Feb 10, 2017 04:09 PM IST

#পশ্চিম মেদিনীপুর:  ফের মধ্যযুগীয় বর্বরতার ঘটনা ঘটল পশ্চিম মেদিনীপুরে। স্রেফ ডাইনি অপবাদ দিয়ে এক বৃদ্ধাকে বাড়ি থেকে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে গিয়ে গ্রামের শেষ প্রান্তে একটি চন্ডি মন্ডপের সামনে নিয়ে গিয়ে বৃদ্ধার মাথা কাটল এক যুবক। এই ঘটনায় রীতিমত অস্থিতিতে পড়েছে পুলিশ প্রশাসন।

সেই বৃদ্ধার মাথা কাটার পর গোটা গ্রাম কাটা মুন্ডু নিয়ে উল্লাস নৃত্য করে নাতি। এমনকী, গ্রামের পানের দোকানে সে পানও খায়। এই ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় পশ্চিম মেদিনীপুরের সাঁকরাইল থানার নওগাঁ গ্রামে। পরে পুলিশ অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়। পুলিশ জানিয়েছে মৃত বৃদ্ধার নাম চেপি বেরা (৬০)। অভিযুক্ত যুবকের নাম রাধাকান্ত বেরা। পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, রাধাকান্ত বেরার দীর্ঘ চার মাস ধরে শরীর খারাপ হত। ওই সময় রাধাকান্ত ডাক্তারি চিকিৎসা না করিয়ে গুনি-ওঝাদের-কে দেখাতেন, ওই গুনি ওঝারাই নাকি বলেছেন তার বড় মা-র অর্থাৎ চেপিদেবীর কু-দৃষ্টি পড়েছে তার উপর। তাই শরীর দিন দিন খারাপ হচ্ছে। জানা গিয়েছে, যখন রাধাকান্তর শরীর খারাপ হতো সেই সময় তার বড় মা চেপি দেবী তুলে নিয়ে যেত ওই গ্রামের চন্ডি মন্ডপের সামনে। সেখানে নিয়ে গেলেই নাকি তার শরীর ঠিক হয়ে যায়। বার বার এই ঘটনা ঘটতে থাকলে চেপিদেবী বিষয়টি সাঁকরাইল থানায় জানান। পরে পুলিশ দুই পক্ষকে থানায় ডেকে নিয়ে গিয়ে বুঝিয়ে বিষটি মিটমাট করে দেন। তারপর থেকে বেশ কিছুদিন চুপচাপ থাকার পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চেপিদেবীকে বাড়ি থেকে টানতে টানতে হাতে ধারালো তরোয়াল নিয়ে চন্ডিমন্ডপে নিয়ে যায়। ওই সময় রাধাকান্তকে বাধা দিতে যায় তার স্বামী ভৈরব বেরা কিন্তু তার কথা না শুনে পাশাপাশি গ্রামের লোকজনদের বাড়ির ভেতরে ঢুকে যেতে বলে। যদি কেউ বাড়িতে না ঢুকে তার ও মাথা কাটা হবে বলে জানান গ্রামের এক প্রত্যক্ষদর্শী বনলতা বেরা। এরপরেই চেপিদেবীর মাথা কেটে শরীর থেকে আলাদা করে দেয় রাধাকান্ত। পাশের একটি পুকুরে তরোয়ালটিকে ফেলে দিয়ে গ্রাম থেকে বেশ কিছুটা দূরে কাটা মাথাটিকে মাটিতে পুঁতে দেয় সে।

পুলিশ ওই দিন রাতেই কাটা মুন্ডুটিকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। তবে তরোয়ালটিকে এখনও পর্যন্ত উদ্ধার করতে পারেননি পুলিশ। উল্লেখ্য গত ৩০ ডিসেম্বর ওই থানা এলাকার ভাঙ্গাবাঁধ গ্রামের ৬৫ বছরের এক বৃদ্ধাকে পিটিয়ে খুন করেছিল গ্রামবাসীরা। সেই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের ডাইনি অপবাদ দিয়ে বৃদ্ধার মাথা কাটল যুবক। এদিন চেপি বেরার মেয়ে আরতী বেরা অভিযোগ করে বলেন, আমার মা-কে মিহির বেরা, হাগরু বেরা, কবিতা বেরা, ও রাধাকান্ত বেরারা ডাইনি ডাইনি বলে শেষ করে দিল। পুলিশ শুক্রবার মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়ে দেন ঝাড়্গ্রাম জেলা হাসপাতালে।

First published: 04:09:25 PM Feb 10, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर