প্রধানমন্ত্রীর কড়া বার্তাই সার, গাড়িতে গো মাংস রাখার অভিযোগে পিটিয়ে খুন ঝাড়খণ্ডে !

Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jun 30, 2017 09:42 AM IST
প্রধানমন্ত্রীর কড়া বার্তাই সার, গাড়িতে গো মাংস রাখার অভিযোগে পিটিয়ে খুন ঝাড়খণ্ডে !
Photo Courtesy: NDTV
Siddhartha Sarkar | News18 Bangla
Updated:Jun 30, 2017 09:42 AM IST

#রাঁচি: গত কয়েকমাসে গোরক্ষার নামে দেশে একের পর এক খুনের ঘটনা ঘটে চলেছে ৷ কখনও হরিয়াণা তো কখনও আবার ঝাড়খণ্ড ৷ গোরক্ষার নামে দেশে রীতিমতো তাণ্ডব চালাচ্ছে একদল জনতা ৷ বিরোধীদের চাপে পড়ে বৃহস্পতিবার ‘স্বঘোষিত’ গোপ্রেমীদের তাণ্ডবের নিন্দায় সরব হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও ৷ কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর নিন্দাই সার ৷ দেশে গোপ্রেমীদের হিংসালীলা কিছুতেই থামছে না ৷ ঝাড়খণ্ডে ফের গাড়িতে গোমাংস রাখার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে খুন করে তার গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটল !

সবরমতী আশ্রমের শতবার্ষিকী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, গো ভক্তির নামে মানুষ খুন কিছুতেই মেনে নেওয়া যায় না। মোদি টেনে আনেন মহাত্মা গান্ধীর কথাও। যে দেশকে মহাত্মা গান্ধী অহিংসার পথ দেখিয়েছেন, সেই দেশে এমন ঘটনা মোটেই কাম্য নয় বলে জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী ৷ কিন্তু তাতে যে বিশেষ লাভ হয়নি , বৃহস্পতিবারের এই ঘটনাই তার প্রমাণ ৷

এদিন রামগড় জেলার বজরতন্ড গ্রামের কাছে মারুতি ভ্যান চালিয়ে যাওয়া অসগর আনসারি নামে এক ব্যক্তির উপর হামলা করে একদল উন্মত্ত জনতা। গাড়ি থামিয়ে তাঁকে মারধর করা হয় বলে জানা গিয়েছে। যদিও হামলার খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে গিয়ে আনসারিকে জনতার হাত থেকে উদ্ধার করা হয় বলে দাবি পুলিশের। কিন্তু হাসপাতালে মৃত্যু হয় আনসারির।

আনসারিকে মারার পরিকল্পনা অনেক আগেই হামলাকারীদের ছিল বলেই মনে করছে পুলিশ ৷ কারণ তিনি মাংসের ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন ৷ তবে ঘটনার সময় আনসারির গাড়িতে গো মাংস ছিল কী না, সে সম্পর্কে নিশ্চিত নয় পুলিশ ৷ তিনদিন আগেই বিজেপি শাসিত এই ঝাড়খণ্ডেই এক ডেয়ারি মালিকের উপর হামলা করেছে একদল মারমুখী জনতা। তাঁর বাড়ির বাইরে গরুর দেহাবশেষ পড়ে থাকতে দেখে হাজারখানেক লোক তাঁর বাড়িও জ্বালিয়ে দেয়। এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই ফের পিটিয়ে খুনের ঘটনা ঘটল ঝাড়খণ্ডে ৷

First published: 09:42:43 AM Jun 30, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर