রাজ্যে ভয়াবহ বন্যায় চুপ কেন বিজেপি? উঠছে প্রশ্ন

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 23, 2017 09:04 AM IST
রাজ্যে ভয়াবহ বন্যায় চুপ কেন বিজেপি? উঠছে প্রশ্ন
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Aug 23, 2017 09:04 AM IST

#কলকাতা: আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে কথায় কথায় প্রতিনিধি দল পাঠালেও, রাজ্যে এমন ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে হাত গুটিয়ে বসে বিজেপি কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গে বন্যা নিয়ে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল তো দূর অস্ত, জলে গোড়ালি ভেজাতে দেখা যায়নি রাজ্যের গেরুয়াশিবিরের নেতাদেরই। চাপে পড়ে অবশ্য ভিন্ন সুর দিলীপ ঘোষের। বন্যার ঘোলাজলে রাজনীতির মাছ ধরার রাস্তাই খোলা রাখছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি।

গত ২১ অগাস্ট মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘ অসম ও গুজরাতকে আর্থিক প্যাকেজ দিয়েছে, আমাদের জন্যও চাইব ৷’ দক্ষিণ ও উত্তরবঙ্গের বন্যায় রাজ্যে মোট ক্ষতি ১৪ হাজার কোটি টাকা। এমন পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকার সাধ্যমতো ত্রাণ কাজ চালাচ্ছে। সরেজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সোমবার উত্তরবঙ্গে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কিছু রাজনৈতিক দল ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনও ত্রাণের কাজে এগিয়ে এসেছে। কিন্তু, এমন ভয়াবহ পরিস্থিতিতেও দেখা নেই বিজেপির। অথচ, খাগড়াগড় থেকে ধূলাগড় বা বসিরহাট, সব ঘটনা নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে রিপোর্ট দিতে তৎপরতা দেখিয়েছেন দিলীপ ঘোষরা। একাধিকবার দল পাঠানোর অনুরোধও জানানো হয়েছে। তাঁর ডাকে সাড়া দিয়ে পেশি আস্ফালনে রাজ্যে এসেছে কেন্দ্রীয় দল। সাত পুরসভা ভোটের পর নিজেদের দ্বিতীয় শক্তি হিসেবে দাবি করলেও মানুষের অসুবিধায় পাশে দাঁড়াতে অদ্ভূত অনীহা দিলীপ ঘোষদের। তিনি বলেন,  রাজ্যকে কেন্দ্রের কাছে বলতে হবে, রাজ্য কী করে দেখি, প্রয়োজন হলে কেন্দ্রের কাছে যাব ৷

বন্যার ঘোলাজলে রাজনীতির মাছ ধরতে চাইলেও, পা ভেজাতে নারাজ দিলীপ ঘোষরা। ধরা পড়তেই তা সুকৌশলে এড়ানোর চেষ্টা বিজেপির রাজ্য সভাপতির। রাজ্যের বন্যাকে বিপর্যয় হিসেবে ঘোষণা করার দাবি তুলেছেন তাঁরা।

এমন পদক্ষেপে প্রশ্ন উঠেছে বিজেপির অন্দরেও। দলের একাংশের মতে, আসলে কেন্দ্রের প্রতিনিধি দল এলে তাঁদের সামনে ত্রাণ নিয়ে রাজ্য বিজেপির নিষ্ক্রিয়তা প্রকাশ্যে চলে আসবে। কেন্দ্রীয় দল এলে সাধারণ মানুষের বিক্ষোভের মুখেও প়ড়তে হতে পারে। ফলে, অস্বস্তি চরমে উঠবে। তাই, রাজনীতির কৌশলে ক্ষত ঢাকতে চাইছেন এ রাজ্যের বিজেপি নেতারা।

First published: 09:04:39 AM Aug 23, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर