সোনিকা মৃত্যুর তদন্তে চাঞ্চল্যকর মোড়, গোপন জবানবন্দি দিতে চান বন্ধুরা

May 11, 2017 03:50 PM IST | Updated on: May 11, 2017 03:59 PM IST

#কলকাতা: বিক্রমের গাড়ি দুর্ঘটনা ও সোনিকা মৃত্যু তদন্তে ফের নয়া মোড় ৷ গোপনে আদালতে জবানবন্দি দিতে চান সোনিকা ও অভিনেতা বিক্রমের বন্ধুরা ৷ এতেই মামলার মোড় ঘুরে যেতে পারেন বলে দাবি তদন্তকারীদের ৷ এর আগে সোনিকা ও বিক্রমের ঘনিষ্ঠ বন্ধু অভিনেতা অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়ের বয়ান ঝড় তুলেছে ৷ এবার আরও সত্য সামনে আসার পালা ৷

সোনিকা মৃত্যুর তদন্তে নেমে এখনও বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর পায়নি পুলিশ ৷ কিভাবে গাড়ি দুর্ঘটনা? তা জানতে বিক্রমকে জেরা করছে তদন্তকারীরা ৷ দুর্ঘটনার কারণ নিয়ে এখনও ধোঁয়াশায় পুলিশ ৷ জেরায় বিক্রমের দাবি, ট্রামলাইনে চাকা পিছলেই এই দুর্ঘটনা ৷ কিন্তু অভিনেতার বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ, মদ্যপানের পর গাড়ি চালাচ্ছিলেন তিনি ৷ জিজ্ঞাসাবাদেই চাঞ্চল্যকর স্বীকারোক্তি বিক্রমের, ‘মদ্যপান করলেও মাতাল হইনি’ ৷

সোনিকা মৃত্যুর তদন্তে চাঞ্চল্যকর মোড়, গোপন জবানবন্দি দিতে চান বন্ধুরা

ছবি সোনিকা ও বিক্রমের ফেসবুক থেকে সংগৃহীত

আরও পড়ুন 

ফের বয়ান বদল, ফুটেজে দেখতে পাওয়া গ্লাসে মদ নয় ছিল ঠাণ্ডা পানীয়, দাবি বিক্রমের

কি হয়েছিল সেদিন রাতে? দুর্ঘটনার আগে কোথায় কোথায় গিয়েছিলেন বিক্রম ? সেদিন গাড়ি চালানোর আগে কতটা মদ খেয়েছিলেন বিক্রম? কেমন ছিল সোনিকা ও বিক্রমের সম্পর্ক? তা জানতেই পার্টিতে উপস্থিত বন্ধুদের জেরা করতে চায় পুলিশ ৷ ইতিমধ্যেই বিক্রম ও সোনিকার চার বন্ধু গোপন জবানবন্দি দিতে চান বলে জানিয়েছেন ৷ সেই মতো আদালতে গোপন জবানবন্দির আবেদন করেছে কলকাতা পুলিশ ৷

পুলিশ সূত্রে খবর, জবানবন্দি দেবেন সিরিন আসফাক, অঙ্কিতা বন্দ্যোপাধ্যায়, পৃথা গুহ, নাজিয়া পারভিন ৷ ঘটনার দিন দুটি পার্টিতেই উপস্থিত ছিলেন এই চার জন ৷

আরও পড়ুন

দুর্ঘটনার আগে গাড়িতে কী করছিলেন সোনিকা-বিক্রম?

এর আগে মঙ্গলবার নিজের বয়ানে বিক্রম-সোনিকার বন্ধু অভিনেতা অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছে, দুর্ঘটনার রাতে মদ খেয়েছিলেন অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায় ৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় এমনটাই দাবি পার্টিতে উপস্থিত বেশ কয়েকজনের ৷

অন্যদিকে বিক্রমের দাবি, দুর্ঘটনার রাতে মদ খেয়েছিলেন তিনি। তবে এতটাও খাননি, যাতে বেসামাল অবস্থায় গাড়ি দুর্ঘটনা হতে পারে। দ্বিতীয় দিনের ম্যারাথন জেরায় পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তি বিক্রম চট্টোপাধ্যায়ের।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES