কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

Jan 24, 2017 08:35 AM IST | Updated on: Jan 24, 2017 08:35 AM IST

প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷ তাছাড়া একাধিক কাগজও পড়ার মতো সময় কারোর হাতেই নেই ৷ তাই আসুন এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ মঙ্গলবার গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

anandabazar11

কী বলছে আজকের খবরের কাগজ ? দেখে নিন

ষাঁড়ের জন্য উত্তাল তামিলনাড়ু, হিংসার আবহেই পাশ হল আইন

ষাঁড়কে বাগে আনার অধিকার ফেরত চেয়ে পথে নেমেছিল তামিল জনতা। সেই জনতাকে বাগে আনতে গিয়ে হিমসিম খেয়ে গেল তামিলনাড়ু সরকার। শাসক দল, বিরোধী দল— কার্যত কাউকেই পাত্তা না দিয়ে জনতা বুঝিয়ে দিল, জাল্লিকাট্টু আর জাল্লিকাট্টুতে সীমাবদ্ধ নেই। অনেক দিনের জমে থাকা ক্ষোভ ঠিকরে বেরোচ্ছে একটা উপলক্ষ খুঁজে নিয়ে। নইলে তিন বছর বন্ধ থাকার পরে বহু আন্দোলন-অবরোধ ৷

জাল্লিকাট্টু বিতর্ক জিইয়ে রাখতে টাকা ঢালছে আইএসআই: স্বামী

ষাঁড়ের লড়াইয়ে নতুন বিতর্ক উস্কে দিলেন বিজেপি নেতা সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তামিলনাড়ু বিধানসভায় আইন পাশ করে যখন জাল্লিকাট্টু সমস্যা মেটানোর ব্যবস্থা প্রায় পাকা, তখন সোমবার দুপুরে রাজ্যসভা সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী দাবি করে বসেন, জাল্লিকাট্টু নিয়ে আন্দোলনের পিছনে রয়েছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই। স্বামী দাবি তোলেন, অশান্ত তামিলনাড়ুতে অবিলম্বে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করতে হবে। বিক্ষোভকারীদের হটাতে প্রয়োজনে আধাসেনা বা সেনা নামাতে হবে।

সাত দফা ভোটে এক সঙ্গে ১৪ সভা করবেন রাহুল ও অখিলেশ

উত্তরপ্রদেশে অখিলেশ যাদবের সঙ্গে হাত মিলিয়ে অন্তত ১৪টি জনসভা করার সিদ্ধান্ত নিলেন রাহুল গাঁধী। রবিবার জোট ঘোষণা হওয়ার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই যৌথ প্রচারের রূপরেখা তৈরিতে নেমে পড়ল দু’দল। প্রাথমিক ভাবে ঠিক হয়েছে, সাত দফা ভোটে, প্রতিটি পর্বে গড়ে দু’টি করে জনসভা করবেন রাহুল-অখিলেশ।

আয় না থাকলে ন্যূনতম আয় বাবদ টাকা পৌঁছে দেবেন মোদী

কেমন হয় যদি মাসের শুরুতে দেশের মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে দেন নরেন্দ্র মোদী! ২০১৯-এ ফের ক্ষমতায় ফিরতে মোদী সরকার তেমনটাই পরিকল্পনা করছে। মনমোহন-সনিয়ার ইউপিএ সরকার রোজগার ও খাদ্য সুরক্ষা দিতে আইন করেছিলেন। এ বার মাস গেলে ন্যূনতম আয়ের ব্যাপারে নিশ্চিন্ত থাকার বন্দোবস্ত করতে চাইছে মোদী সরকার। যার মূল মন্ত্র হল, সরকারের তরফ থেকে নাগরিকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম আয় বাবদ টাকা পৌঁছে দেওয়া। ১ ফেব্রুয়ারি অরুণ জেটলির বাজেট এ বিষয়ে দিশা দেখাতে পারে। মুখ্য অর্থনৈতিক উপদেষ্টা অরবিন্দ সুব্রহ্মণ্যন তাঁর আর্থিক সমীক্ষাতেও এর পক্ষে সওয়াল করবেন।

bartaman_big11

রোজভ্যালির মেডিক্লেম শুরু সুদীপের সুপারিশে: সিবিআই

রোজভ্যালি বাজারে যে মেডিক্লেম পলিসি এনেছিল, তা এখন সিবিআইয়ের নজরে। রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গে তৃণমূলের এমপি সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পর্ক যে কত গভীরে ছিল, এই পলিসিই তার উদাহরণ বলে দাবি করেছে সিবিআই। আধিকারিকদের বক্তব্য, মেডিক্লেম পলিসির মাধ্যমে নতুন ব্যাবসা চালু করতে যাতে অসুবিধা না হয়, সেজন্য ইনসিওরেন্স রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটির কাছে সুপারিশ করেছিলেন এই সংসদ সদস্য। তার ভিত্তিতেই এই পলিসি চালু করার লাইসেন্স পায় রোজভ্যালি। কেন্দ্রে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী থাকার সময় সুদীপবাবু এই সুবিধা পাইয়ে দিয়েছিলেন বলে অভিযোগ। এরপর একটি বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধে এই চিটফান্ড সংস্থা। হেপাজতে থাকাকালীন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে এই নিয়ে প্রশ্নও করা হয়। যদিও তিনি সিবিআইকে জানিয়েছেন, নিজের পদের অপব্যবহার করে কাউকে বাড়তি সুবিধা তিনি পাইয়ে দেননি। তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে।

পাহাড় কাউকে ছাড়ব না, গুরুংকে চ্যালেঞ্জ মমতার

বাংলার অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ পাহাড়কে আলাদা করার কোনও চক্রান্ত তিনি যে বরদাস্ত করবেন না, তা সোমবার দার্জিলিংয়ের ম্যালে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২১তম জন্মদিবস অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে আরও একবার স্পষ্ট করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা প্রধান বিমল গুরুং আর তাঁর সাঙ্গপাঙ্গদের নাম না করে মুখ্যমন্ত্রীর বার্তা—পাহাড় কাউকে ছাড়ব না, কখনও ছাড়ব না। হিল আমার দিল। বাংলার অবিচ্ছেদ্য এই  অংশকে আগলে রাখবই। ওয়াকিবহাল মহলের বক্তব্য, বর্তমান পর্যটন মরশুম শেষে ফের গোর্খাল্যান্ডের জিগির তোলার যে আগাম ঘোষণা বিমল গুরুংরা করে রেখেছেন, মোর্চা সুপ্রিমোর ডেরায় গিয়ে কার্যত তাকেই চ্যালেঞ্জ জানালেন মমতা। শুধুমাত্র চ্যালেঞ্জ জানানোই নয়। বিশ্বস্ত সৈনিক মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকে দিয়ে পাহাড়ে মোর্চা সমর্থক বাঙালিদের মুখ দার্জিলিং পুরসভার প্রাক্তন কাউন্সিলার শুভময় চট্টোপাধ্যায়ের মতো গুরুং ঘনিষ্ঠকে এদিন তৃণমূল শিবিরে জুড়েও নিয়েছেন। এদিন বিকালে চকবাজারে তৃণমূল অফিসে জোড়াফুল পতাকা হাতে নিয়ে সস্ত্রীক শুভময়বাবু জানান, পুরসভা ও জিটিএ পরিচালনায় মোর্চার লাগামছাড়া দুর্নীতির প্রতিবাদে তিনি দল ছাড়লেন। তাঁর কথায়, পাহাড়ের সব ভাষা আর বর্ণের মানুষের উন্নয়ন একমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মাধ্যমেই সম্ভব।

বাজেট হবে ১ ফেব্রুয়ারি, জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট

বাজেট নিয়ে রাজনৈতিক টানাপোড়েনে জয় হল মোদি সরকারেরই। বিরোধীদের বড়সড় ধাক্কা দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোট শিয়রে হলেও সংসদে বাজেট পেশ করায় কোনও আপত্তি নেই বলে জানিয়ে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। আজ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি জে এস কেহর এবং ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের বেঞ্চ এই রায় ঘোষণা করায় আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সংসদে বাজেট পেশ করায় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির সামনে আর কোনও প্রতিবন্ধকতা রইল না। ঠিক পাঁচরাজ্যে যখন নির্বাচন শুরু হবে তার প্রাক্কালে কেন্দ্রীয় সরকার বাজেট পেশ করে নানাবিধ জনমোহিনী উপহার ঘোষণা করলে ভোটারদের মন প্রভাবিত হতে পারে বলে জানিয়ে বিরোধী দলগুলি সম্প্রতি নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছিল।

পরিশ্রমী মমতা রাজ্যে শিল্প আনতে চেষ্টার কসুর করছেন না

বিশ্ব বঙ্গ বাণিজ্য সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। বলেছিলেন, মমতার হাত ধরেই ঘুরে দাঁড়াবে বাংলার শিল্প। সেই পরিবেশ, সেই পরিস্থিতি আছে আমাদের এই রাজ্যে। মমতাই পারবেন বাণিজ্যের খরা কাটাতে। সদ্য শেষ হওয়া সম্মেলনে ২ লক্ষ ৩৫ হাজার ২৯০ কোটি টাকার বিনিয়োগের প্রতিশ্রুতি পেয়েছেন মমতা। হয়তো দেশ-বিদেশ থেকে প্রচুর ভারী ভারী নাম এই দেড়দিনের মহাযজ্ঞে শোনা যায়নি, তাতে কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীর এই উদ্যোগকে কোনওভাবেই ছোট করা যায় না। বহুদিন ধরে এর সাফল্যের জন্য দিনরাত এক করে ফেলেছেন তিনি। জার্মানি গিয়েছেন। ইতালিও। তাঁর সফরসঙ্গী হওয়ার সুবাদে দেখেছি, কী মারাত্মক পরিশ্রম করেছেন তিনি। লক্ষ্য ছিল একটাই, বাংলার শিল্পকে শিখরে নিয়ে যাওয়া। অনেক কিছু শেখার আছে তাঁর থেকে। আটপৌরে শাড়ি পরেও যে সাবলীলভাবে বিদেশি স্যুট পরিহিতদের সামনে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকা যায়, তা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না।

ei samay

ত্রিস্তর নিরাপত্তায় বাঁচার নয়া পন্থা শিখছে ভাঙড়

রাত হলেই গ্রামশুদ্ধ লোকজড়ো হচ্ছে মাঠে, ঝাড়ে, গোরস্থানে ৷ কেউ উঠে পড়েছে মগডালে ৷ কেউ আবার লাঠি হাতে লুকিয়ে বাঁশ ঝাড়ের মধ্যে ৷ প্রযোজনে পুকুর ধারে গর্ত করে জনা কয়েক লুকিয়ে থাকছেন ৷

বাজেটে ভোট রাজ্যের ‘বিশেষ’ স্কিম ঘোষণা করবেন না, কেন্দ্রকে নির্দেশ কমিশনার

নির্বাচনের আগে বাজেট পেশ হলে ভোটদাতাদের মত প্রভাবিত হওয়ার কোনও জোরাল প্রমাণ না থাকায় বাজেট পেশের দিন পয়লা ফেব্রুয়ারিতেই অপরিবর্তীত রেখেছে সুপ্রিম কোর্ট ৷

এক মিনিটেই বিশেষ অধিবেশনে পাশ হল জাল্লিকাট্টু বিল

মেরিনা বিচে শান্তিপূর্ণ ভাবেই শুরু হয়েছিল প্রতিবাদ ৷ কিন্তু দু’দিনেই পরিস্থিতি ক্রমেই হচ্ছিল অগ্নিগর্ভ ৷ জাল্লিকাট্টু ইস্যুতে তামাম তামিলনাড়ুর পথে ৷ এহেন অবস্থায় তামিল সংস্কৃতির প্রাচীন প্রথা জাল্লিকাট্টুকে আইনি বৈধতা দিয়ে দিল রাজ্য ৷

বাজেট পেশের দিন থাকছে অপরিবর্তিত: সুপ্রিম রায়

সুপ্রিম কোর্টের কাছে আসন্ন সাধারণ বাজেট পেশের দিন পিছিয়ে দেওয়ার আর্জি জানিয়েছিল বেশ কয়েকটি বিরোধী দস ৷ তাদের দাবি ছিল ৫ রাজ্যে নির্বাচনের আগে বাজেট পেশ হল BJP তার সুযোগ নিতে পারে ভোট টানার জন্য ৷ সোমবার এর শুনানিতে বিরোধী দলগুলির আর্জি খারিজ করে দিল দেশের শীর্ষ আদালত ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES