বৃষ্টির হাত ধরে বাংলায় ঢুকছে হাড় কাঁপানো ঠান্ডা

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 10, 2017 06:03 PM IST
বৃষ্টির হাত ধরে বাংলায় ঢুকছে হাড় কাঁপানো ঠান্ডা
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 10, 2017 06:03 PM IST

#কলকাতা: রবিবার কিছুটা তাপমাত্রা নেমেছিল দক্ষিণে, কিন্তু সোমবারের চড়া রোদ ফের গায়ে চিরবিড়ানি ধরিয়েছে। বিন্দু বিন্দু জমা ঘাম মনে সন্দেহ জাগছিল, কলকাতার ভাগ্যে কি তাহলে আর কড়া শীতের শিঁকে ছিড়বে না ৷ তবে আবহাওয়াবিদরা মঙ্গলবার যা শোনালেন, তাতে ফের নতুন করে আশার আলো দেখছেন দক্ষিণবঙ্গের মানুষ। বিদায় বেলায় পৌষের শীতে কাঁপুনি ধরবে হাড়ে। অন্তত এমনটাই পূর্বাভাস আবহাওয়া দফতরের। ১৩ থেকে ১৫ জানুয়ারি ১২ ডিগ্রি বা তার কমে নেমে যেতে পারে তাপমাত্রা।

সান্দাকফুতে মরশুমের প্রথম তুষারপাত। আর দক্ষিণবঙ্গে রোদে বেরোলেই গা জ্বালা ভাব। একবেলা একটি ঠাণ্ডার কামড় দিলেই, পরের দিন সেই ঠাণ্ডার আমেজ গায়েব। লেপ কম্বল, গরম জামাকাপড় দেরাজে না তুললেও, তার ব্যবহার কমে যাচ্ছিল, ফলে মন খারাপ হচ্ছিল কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের।

আবহাওয়াবিদদের পূর্বাভাস, তবে এবার সেই মন খারাপের শেষের পালা । আলিপুর আবহাওয়া দফতরের মঙ্গলবারের পূর্বাভাস, কাশ্মীর হিমাচলে প্রবল তুষারপাতের সৃষ্ট করার পর ঝঞ্ছাটি এবার ক্রমে পূর্ব দিকে সরে যাচ্ছে। কিন্তু তার প্রভাবে মধ্যপ্রদেশের উপরে সৃষ্ঠ ঘূর্ণাবর্ত এখনও রয়ে গিয়েছে । ফলে উত্তর ভারতের বিভিন্ন অংশে হিমেল হাওয়ার দাপটে তাপমাত্রা কমতে শুরু করলেও, পূবের ক্ষেত্রে উলটপূরাণ।

মঙ্গলবার দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৬.৪ ডিগ্রি। পারদের উর্ধ্বগতি জারি থাকবে বুধবারও। এদিন জলীয় বাষ্পের প্রভাবে বৃষ্টি হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় ৷ বীরভূম, বাঁকুড়া, মুর্শিদাবাদ, মালদহ ও দক্ষিণ দিনাজপুরে সেই বৃষ্টির হাত ধরেই ঠাণ্ডার আমেজ ঢুকবে দক্ষিণবঙ্গে। হু হু করে নামবে তাপমাত্রা। শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রি হতে পারে বলেও মনে করছে আবহাওয়াবিদরা। ৮-৯ ডিগ্রির কাছাকাঠি নেমে যেতে পারে বাঁকুড়া, বীরভূম, নদিয়ার তাপমাত্রাও।

আবহবিদদের কথা সত্যি হলে পৌষ সংক্রান্তিতে জাঁকিয়ে শীত উপভোগ করবে দক্ষিণবঙ্গের মানুষ। তবে উত্তুরে হাওয়ার ঢোকার পথ প্রশস্ত হলেও শৈল শহরে তুষারপাতের কোনও সম্ভাবনার কথা শোনাতে পারেনি আবহাওয়া দফতর। তবে তাতে কী, পৌষের শেষে সত্যি যদি কনকনে ঠাণ্ডায় লেপের ওম নিতে হয়, তাহলে খারাপ কি।

First published: 06:03:31 PM Jan 10, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर