জোরে বাইক চালালে জরিমানা লাগবে ৫ হাজার টাকা !

Aug 09, 2017 05:32 PM IST | Updated on: Aug 09, 2017 05:32 PM IST

#কলকাতা: অবাধ্য বাইককে বাগে আনতে জরিমানার পরিমাণ বাড়াল রাজ্য পরিবহণ দফতর। একশো টাকা থেকে জরিমানা একলাফে বাড়ল পাঁচ হাজার টাকা। ইতিমধ্যেই জারি হয়েছে নির্দেশিকা। জরিমানার অঙ্ক বাড়লেও রাতের রাস্তায় পুলিশি নজরদারি কতটা থাকবে? উঠছে প্রশ্ন।

শহর হোক বা জেলা। বিকেল নামতেই সিগন্যাল কম থাকা রাস্তা বা ফ্লাইওভারগুলিতে হামেশাই নজরে পড়ে একদল বাইক আরোহীর বেপরোয়া দাপাদাপি। রাজারহাট, নিউটাউন, বেলঘড়িয়া বা বাসন্তী এক্সপ্রেসওয়ে। প্রতিদিনই এই নিয়ে একাধিক অভিয়োগ জমা পড়ে পুলিশের খাতায়। ২০১৬-র জুলাইয়ে সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ প্রকল্প চালুর সময় খোদ মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, নো হেলমেট-নো ফুয়েল। পেট্রোল পাম্পগুলি কয়েকদিন নির্দেশিকা মানলেও পরে অবশ্য গা ঢিলেমির ছবিই ধরা পড়ে। বাইক দুর্ঘটনার অন্যতম ও প্রধান কারণ অবাধ্য গতি। অতিরিক্ত গতি কাড়ছে প্রাণও। তাই মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ট্রাফিক পুলিশ ও পরিবহণ দফতকরের। এক লাফে জরিমানার অঙ্ক একশো থেকে বাড়ানো হল পাঁচ হাজার। পরিবহণ দফতর সূত্রে খবর,

জোরে বাইক চালালে জরিমানা লাগবে ৫ হাজার টাকা !

বাইস রেসিংয়ে বেশি জরিমানা

-------------------------

- এতদিন এধরনের ঘটনা প্রথম,দ্বিতীয় বা সমতুল অপরাধ হিসেবে গণ্য

- ১০০ টাকা জরিমানা ধার্য ছিল

- দ্বিতীয় বারের বেশি অপরাধে ৫০০ টাকা জরিমানা

- শুধু জোরে বাইক চালানো বা হেলমেট না পরার জরিমানা নেওয়া হত

- নতুন নিয়মে বাইক রেসিংয়ে সমস্ত অপরাধ সংগঠিত করে জরিমানা ধার্য

- জরিমানা দিতে হবে ৫ হাজার টাকা

জরিমানার পরিমাণ বাড়লে দুর্ঘটনার হার অনেকটা কমবে বলেই মনে করছে পরিবহণ দফতর।

বিধানসভায় পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন, জেলাগুলির ক্ষেত্রে জরিমানা ধার্য করার জন্য পরিবহন দফতরে কর্মী সংখ্যা কম। তাই জেলার DSP পদমর্যাদার কর্তাদের চিহ্নিত করার জন্য দায়িত্ব নিতে বলা হয়েছে।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES