এভারেস্ট অভিযানে মৃত পর্বতারোহীদের দেহ ফেরাতে উদ্যোগ রাজ্য সরকারের

May 16, 2017 01:46 PM IST | Updated on: May 16, 2017 03:44 PM IST

#কলকাতা: এভারেস্ট অভিযানে গিয়ে মৃত পর্বতারোহী পরেশ নাথ ও গৌতম ঘোষের দেহ ফেরাতে উদ্যোগ নিল রাজ্য সরকার ৷ একবছরেরও বেশি সময় পর এবার ঘরে ফিরবেন নিখোঁজ পর্বতারোহী ৷ তবে পায়ে হেঁটে নয়, কফিনবন্দি হয়ে ৷ পাহাড়ই যাদের ভালবাসা, ধ্যান-জ্ঞান সেই পাহাড়ের কোলেই ঘুমিয়ে ছিলেন দুই এভারেস্ট অভিযানকারী, দুর্গাপুরের পরেশনাথ ও বারাকপুরের গৌতম ঘোষ। গতবছর এভারেস্ট অভিযানে গিয়ে নিখোঁজ এই দুই বাঙালি পর্বতারোহীর দেহ ফিরিয়ে আনার দায়িত্ব নিল রাজ্য সরকার ৷

এভারেস্টের চূড়া থেকে দেহ ফিরিয়ে আনতে যে খরচ করতে হবে সেই খরচ ব্যয় করা তাদের পক্ষে সম্ভব নয় বলে জানায় পরেশ চন্দ্র নাথের স্ত্রী সবিতা নাথ । দেহ ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করার জন্য রাজ্য সরকারের কাছে আর্জি জানান পরেশ নাথ ও গৌতম ঘোষের প্রিয়জনেরা ৷

এভারেস্ট অভিযানে মৃত পর্বতারোহীদের দেহ ফেরাতে উদ্যোগ রাজ্য সরকারের

ইতিমধ্যেই পরেশ নাথের দেহের খোঁজ মিলেছে ৷ গৌতম ঘোষের খোঁজ মিলবে শীঘ্রই বলে আশাবাদী পরিবার ও বন্ধুরা ৷ পরেশ নাথের দেহ কলকাতায় ফিরিয়ে আনতে নেপাল যাচ্ছেন রাজ্য সরকারের বিশেষ প্রতিনিধি দল ৷ দলে থাকছেন সচিব সৈয়দ আহমেদ বাবা, পর্বতারোহী উজ্বল রায় ও দেবরাজ নন্দী ৷

২০১৬-য় এক দল পর্বতারোহীর সঙ্গে এভারেস্ট অভিযানে যান পরেশ নাথ ও গৌতম ঘোষ ৷ অভিযান শেষে বাকিরা ফিরে এলেও ফেরেননি এই দু’জন ৷ অভিযান সম্পূর্ণ করার আগেই মৃত্যু হয় তাদের দলের আরেক পর্বতারোহী সুভাষ পালের ৷ এভারেস্টে অভিযান শেষের আগে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করা গেলেও আবহাওয়া প্রতিকূল হওয়ার জন্য মাঝপথেই বন্ধ হয়ে যায় উদ্ধারকাজ ৷ তাই এভারেস্ট শৃঙ্গের পথেই বরফের নীচে শায়িত ছিলেন গৌতম ও পরেশের মৃতদেহ ৷

এবছর আবহাওয়া ঠিক হতেই এভারেস্টে উদ্ধার অভিযানে নামে প্রশিক্ষিত দল ৷ বৃহস্পতিবার এভারেস্টের সাউথ কোলে ২ নং ক্যাম্প থেকে উদ্ধার হয় পরেশ নাথের মৃতদেহ ৷

গত বছর সাগরমাতা পলিউশন কন্ট্রোল কমিটির তরফে জানানো হয়, এভারেস্টের ট্রাই অ্যাঙ্গেল ফেসে রয়েছে গৌতম ঘোষের দেহ ৷

অ্যাডভেঞ্চারপ্রিয় কলকাতা পুলিশের দক্ষ অফিসার গৌতম ঘোষ। চারবার এভারেস্ট জয়ের চেষ্টার পর এবার এসেছিল সাফল্য। এভারেস্টের চূড়ায় উঠে হয়ত মনে হয়েছিল পৃথিবী তাঁর হাতের মুঠোয়। কিন্তু ফেরার পথে বাদ সাধল ক্লান্তি।

ছোটবেলা থেকে দেখা স্বপ্নকে ছুঁয়ে দুর্গাপুরের শারীরিকভাবে পিছিয়ে পড়া পরেশনাথের কী মনে হয়েছিল তাও অজানাই থেকে গেল। বরফের যে বাধা ডিঙিয়ে বার বার পাহাড় শৃঙ্গ ছুঁতে অভ্যস্থ পর্বতারোহীরা, যে বরফকে কখনই প্রতিবন্ধক বলে মনে হয়নি, তুষারধসের কবলে পড়ে সেই বরফের নীচেই চিরকালের মত ঘুমিয়ে পড়েন তাঁরা ৷ যাঁরা হিমালয়কে ভালবাসেন তাঁরা বোধহয় এভাবেই হিমালয়ের কোলেই ঘুমিয়ে পড়তে ভালবাসেন।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES