স্কুল শিক্ষকরা কেন করবেন প্রাইভেট টিউশন? দায়ের জনস্বার্থ মামলা

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 31, 2017 06:52 PM IST
স্কুল শিক্ষকরা কেন করবেন প্রাইভেট টিউশন? দায়ের জনস্বার্থ মামলা
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 31, 2017 06:52 PM IST

#কলকাতা: আইন বলছে অন্য কথা ৷ কিন্তু আইনের পরোয়া না করেই রমরমিয়ে চলছে বেআইনি ‘ব্যবসা’ ৷ আগামীকে পথ দেখানো যাদের কাজ তারাই দিচ্ছেন আইন অমান্যের প্রাথমিক শিক্ষা ৷ স্কুলশিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন নিষিদ্ধ করার পরও আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে চলছে স্কুল শিক্ষকদের গৃহশিক্ষকতা ৷

স্কুলশিক্ষকদের এমন প্রবণতা আদালতের নজরে আনতে শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করলেন কমল দে ৷ মামলা গ্রহণ করেছে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ ৷ শুনানি হবে আগামী ২১ এপ্রিল ৷

২০০৯ সালে পাশ হওয়া শিক্ষার অধিকার আইনের ২৮ নং ধারা অনুযায়ী, সরকারি, সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুল ও বেসরকারি স্কুলের শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশনি বা অন্য কোনও রকম প্রাইভেট প্র্যাক্টিস নিষিদ্ধ করা হয় ৷ ২০১১ সালে রাজ্য সরকার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে স্কুল শিক্ষকদের এই নির্দেশিকা সম্পর্কে জানালেও বদলায়নি ছবিটা ৷

সকলের চোখের সামনেই স্কুলে পড়ানোর পাশাপাশি বাড়িতেও ব্যাচের পর ব্যাচ ছাত্র পড়িয়ে উপরি উপার্জন করছেন শিক্ষকেরা ৷ অথচ নিয়ম বলছে, কোনও শিক্ষক স্কুলের বাইরে প্রাইভেট টিউশনি করছেন একথা জানতে পারলেই প্রধানশিক্ষক তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা নেবেন এবং তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে ডিস্ট্রিক ইনস্পেকটর ঘটনার তদন্ত করে চুড়ান্ত পদক্ষেপ নেবেন ৷ বিজ্ঞপ্তির পর সাত বছর কেটে গেলেও স্কুল শিক্ষকদের বেআইনি এই কাজ বন্ধে আজ পর্যন্ত কোনও পদক্ষেপ নেওয়ার নজির নেই, এমনকি অভিযোগ দায়ের উদাহরণও মেলেনি ৷

একইসঙ্গে শিক্ষার অধিকার আইনের অন্য একটি ধারা অমান্যেও কলকাতার প্রথম সারির বেশ কয়েকটি স্কুলের বিরুদ্ধে দায়ের হয়েছে মামলা ৷ ২০০৯ শিক্ষার অধিকার আইন অনুযায়ী, প্রত্যেক স্কুলে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত মোট আসনের ২৫ শতাংশ সমাজের পিছিয়ে পড়া স্তর থেকে আসা পড়ুয়াদের জন্য সংরক্ষিত রাখতে হবে ৷ বেশিরভাগ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানেই মানা হচ্ছে না এই নিয়ম ৷ ডন বস্কো, লা মার্টিনিয়ার, সাউথ পয়েন্ট বয়েজ অ্যান্ড গার্লসের মতো বেশ কিছু স্কুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে ৷

First published: 06:52:44 PM Mar 31, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर