সম্পর্কের জটিল টানাপোড়েনের জেরেই কী আত্মহত্যা করেন ইমন ? নাকি রয়েছে আরও বড় ষড়যন্ত্র

Feb 10, 2017 03:57 PM IST | Updated on: Feb 10, 2017 03:57 PM IST

#কেষ্টপুর: রুমমেটের সঙ্গে প্রেমিকার নতুন করে সম্পর্ক মেনে নিতে পারছিলেন না ইমন দত্ত। ত্রিকোণ সম্পর্কের কথা জানতেই মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন। পুরুলিয়ার বাড়িতে মা-কে ফোন করে ইমন জানিয়েছিলেন, তাঁর মন ভাল নেই। প্রেমিকার সঙ্গে সম্পর্কের অবনতির জেরে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েই কি আত্মহত্যা? কেষ্টপুরে ইমন দত্তের রহস্যমৃত্যুতেও সেই সম্পর্কের টানাপোড়েনের তত্ত্ব।

কেষ্টপুরে ছাত্রের রহস্যমৃত্যু। বন্ধুর ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার ঝুলন্ত দেহ। কিন্তু কেন এই চরম পথ বেছে নিলেন ইঞ্জিনিয়রিংয়ের প্রথম বর্ষের ছাত্র ইমন? সামনে আসছে ত্রিকোণ প্রেম ও সম্পর্কের জটিল সমীকরণ। ইমনের পরিবারের দাবি,

সম্পর্কের জটিল টানাপোড়েনের জেরেই কী আত্মহত্যা করেন ইমন ? নাকি রয়েছে আরও বড় ষড়যন্ত্র

-- পুরুলিয়ায় স্কুলে পড়ার সময় থেকেই একটি মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে ইমনের

-- ইমন কলকাতায় ইঞ্জিনিয়রিং কলেজে ভর্তি হয়

-- মেয়েটিও পুরুলিয়া থেকে কলকাতায় এসে ইন্টিরিয়র ডিজাইনিং কোর্সে ভর্তি হয়

-- রুবিতে ভাড়ার ফ্ল্যাটে মেয়েটির যাতায়াতও ছিল

-- রুমমেট অয়ন চক্রবর্তীর সঙ্গে সেখানেই মেয়েটির নতুন সম্পর্ক তৈরি হয়

-- দীর্ঘদিনের বান্ধবীর সঙ্গে রুমমেটের সম্পর্ক জানতে পেরেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন ইমন

-- পুরুলিয়ার বাড়িতে মা-কে ফোন করে মন ভাল নেই বলে জানায় ইমন

-- বৃহস্পতিবার ইমন তাঁর বান্ধবীর সঙ্গে দেখা করেন

-- সেখানেই ইমনের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় তাঁর

বন্ধুমহলে জনপ্রিয় ইমনের দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্কের কথা জানা ছিল সবারই। সূত্রের খবর, প্রেমিকার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ বন্ধুর নতুন সম্পর্ক ইমন মেনে নিতে পারছিলেন না। সেকথা অয়ন ও তাঁর বান্ধবীকে বোঝানোর চেষ্টাও করেছিলেন তিনি। প্রাথমিকভাবে ত্রিকোণ প্রেমের জেরে চরম অবসাদ আর হতাশায় ইমন এই চরম পথ বেছে নিয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। তবে, এই ঘটনার পিছনে অন্য কোনও রহস্য থাকার কথাও উড়িয়ে দিচ্ছে না পুলিশ।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES