রাজারহাট থেকে গ্রেফতার মোস্ট ওয়ান্টেড মহিলা ছিনতাইবাজ !

May 28, 2017 04:28 PM IST | Updated on: May 28, 2017 04:28 PM IST

#কলকাতা: রাজারহাট থেকে পুলিশের জালে ধরা পড়ল মোস্ট ওয়ান্টেড মহিলা ছিনতাইবাজ। ধৃতের নাম রোকেয়া বিবি। লোকাল ও এক্সপ্রেস ট্রেনে ছিনতাইচক্রের এই পাণ্ডাকে দীর্ঘদিন ধরেই খুঁজছিল শিয়ালদহ ও বালিগঞ্জ রেলপুলিশ। শনিবার সন্ধেয় রোকেয়া গ্রেফতার হতেই রহস্যের পর্দাফাঁস হয়ে যায়। তার বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে প্রচুর চোরাই মোবাইল ও বিদেশি মুদ্রা।

ট্রেনে বা বাসে গা ঘেঁষাঘেঁষি করে যাতায়াত। মুহূর্তের অসতর্কতাতেই উধাও মোবাইল, মানিব্যাগ বা গয়না। গত বেশ কয়েকবছর ধরে রেলের শিয়ালদহ সেকশনের বিভিন্ন শাখা ও রাজারহাটের একাধিক বাস রুটে এভাবে চলছিল ছিনতাইচক্র। পুলিশ জানতে পারে, চক্রের পাণ্ডা রোকেয়া বিবি নামে এক মহিলা। বহু অভিযোগ পেলেও, চক্রের পাণ্ডা রোকেয়াকে ছুঁতে পারছিল না পুলিশ। শনিবার, রাজারহাটের লাঙলপোতা থেকে ধরা পড়ে রোকেয়া। কীভাবে জালে ধরা পড়ল রোকেয়া?

রাজারহাট থেকে গ্রেফতার মোস্ট ওয়ান্টেড মহিলা ছিনতাইবাজ !

কীভাবে জালে রোকেয়া? (ক্রোমা)

- গতবছর শিয়ালদহ-আজমীর এক্সপ্রেস থেকে ৬ ছিনতাইবাজ ধরা পড়ে

- ওই বছরেই পার্ক সার্কাস থেকেও ধরা পড়ে ৬ ছিনতাইবাজ

- এরা প্রত্যেকেই পুলিশি জেরায় পাণ্ডা হিসেবে রোকেয়া বিবির নাম করে

- হাড়োয়ার বাসিন্দা রোকেয়া বর্তমানে রাজারহাটের লাঙলপোতায় রয়েছে বলে জানতে পারে পুলিশ

- শনিবার সন্ধেয় সেখানে হানা দেয় রাজারহাট থানার পুলিশ

দেখতে সাধারণ। পোশাক-আশাকও সাধারণ। ট্রেনের বা বাসের ভিড়ে অনায়াসেই গা ঢাকা দিত রোকেয়া। তার মূল টার্গেট ছিল মহিলারাই। লেডিস কর্ম্পার্টমেন্টেই বেশিরভাগ হানা দিত সে। তার বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া জিনিসেও তারই প্রমাণ।

কী কী উদ্ধার?

- রোকেয়ার বাড়ি থেকে মিলেছে ৫০০ গ্রাম রুপোর গয়না

- মিলেছে ২০ গ্রাম সোনার গয়না

- কমদামি ও বেশি দামের মিলে মোট ৫৭ মোবাইল মোবাইল

- উদ্ধার হয়েছে প্রচুর লেডিস ব্যাগ

- এছা়ড়া, মিলেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, স্কটল্যান্ড, নেপাল, ভুটান, চিনের মুদ্রা

রেলের শিয়ালদহ সেকশনের একাধিক লাইন ছিল রোকেয়া ও তার দলবলের অপারেশনের এলাকা। শিয়ালদহ থেকে দমদম-সহ বিভিন্ন স্টেশনে অপারেশন চালায় রোকেয়া ও তার দলের লোকজন। শিয়ালদহ সাউথ সেকশনে পার্ক সার্কাস, যাদবপুর, লেক গার্ডেন্স-গামী বিভিন্ন ট্রেনের যাত্রীরা ছিল তার টার্গেট। বনগাঁগামী একাধিক লোকালেও তারা চুরি করত ৷

এছাড়া, একাধিক এক্সপ্রেস ট্রেনের জেনারেল বগিও টার্গেট ছিল রোকেয়া দলবলের। শুধু ট্রেন নয়, রাজারহাটের একাধিক বাস রুটেও হানা দিত ছিনতাইবাজরা। রাজারহাটের মূলত, 211, 91 ও 91/C বাসেও অপারেশন চালাত ওই ছিনতাইবাজদের দল। রোকেয়ার বাড়ি থেকে মেলা বিদেশি মুদ্রা চিন্তা বাড়িয়েছে পুলিশের। ওই গ্যাঙটির সঙ্গে কি অন্য কোনও চক্র জড়িয়ে? এই প্রশ্নই ভাবাচ্ছে তদন্তকারীদের।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES