বাংলার ১৯ নেতা-মন্ত্রীর বিরুদ্ধে আয় বর্হিভূত সম্পত্তি নিয়ে জনস্বার্থ মামলা

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 24, 2017 06:08 PM IST
বাংলার ১৯ নেতা-মন্ত্রীর বিরুদ্ধে আয় বর্হিভূত সম্পত্তি নিয়ে জনস্বার্থ মামলা
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 24, 2017 06:08 PM IST

#কলকাতা: চিটফান্ড ও নারদের আইনি ঝামেলা মিটতে না মিটতেই ফের বিপাকে এরাজ‍্যের শাসক দলের নেতারা। কলকাতা হাই কো‍‍র্টে আয় বর্হিভূত সম্পত্তি নিয়ে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছে। চার সপ্তাহের মধ‍্যে ওই মন্ত্রী, বিধায়ক ও নেতাদের হলফনামা দিতে হবে আদালতে। তার পর ফের শুনানি।

রাজ‍্যের নেতা মন্ত্রীদের আয় বর্হিভুত সম্পত্তি নিয়ে এবার আর শুধু চর্চা নয়। সরাসরি মামলা দায়ের কলকাতা হাই কোর্টে। মন্ত্রী, বিধায়ক মিলিয়ে ১৯ জনের বিরুদ্ধে এই মামলা দায়ের হয়েছে। জনস্বার্থ মমালাকারীর দাবি সিবিআই তদন্তের।

ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি নিশিতা মাত্রের ডিভিশন বেঞ্চে এই মামলার শুনানিতে পাল্টা সওয়াল করেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রর আইনজীবী। বলেন, ‘অর্থমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য নয় ৷ ২০১১-২০১৬ সম্পত্তির হিসেব ঠিক নয় ৷ অর্থমন্ত্রীর পেনশন ও গ্র্যাচুইটি, সেই সম্পত্তির উল্লেখই নেই ৷’ ভুলে ভরা মামলার অভিযোগ তুলে আইনজীবী বলেন, ‘জনস্বার্থ মামলা ধোপে টেকে না ৷’

তবে বিচারপতিরা এই বক্তব‍্য মানতে রাজি হননি। যে কারনে চার সপ্তাহের মধ‍্যে প্রত‍্যেককে হলফনামা জমা দিতে বলেছেন। হলফনামা দিতে হবে ৷ যে সব মন্ত্রী ও নেতাদের হলফনামা দিতে হবে তারা হলেন,

শোভন চট্টোপাধ‍্যায়- মন্ত্রী ও মেয়র

জ‍্যোতিপ্রিয় মল্লিক-মন্ত্রী

মলয় ঘটক-মন্ত্রী

অর্জুন সিং-বিধায়ক

গৌতম দেব- মন্ত্রী

ইকবাল আহমেদ-বিধায়ক

ফিরহাদ হাকিম-মন্ত্রী

স্বর্ণকমল সাহা-বিধায়ক

ব্রাত‍্য বসু-মন্ত্রী

অরূপ রায়-মন্ত্রী

জাভেদ খান-মন্ত্রী

অমিত মিত্র-মন্ত্রী

আব্দুর রেজ্জাক মোল্লা-মন্ত্রী

সুব্রত মুখার্জি-মন্ত্রী

রাজীব বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়-মন্ত্রী

সাধন পাণ্ডে- মন্ত্রী

সব‍্যসাচী দত্ত- মেয়র, বিধাননগর

শিউলি সাহা-বিধায়ক

বিমান বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়- অধ‍্যক্ষ, বিধানসভা

তবে এই জনস্বার্থ মামলায় কোনও গুরুত্ব দিতে নারাজ মন্ত্রীরা ৷ নারদে সিবিআই তদন্তের নির্দেশ হয়েছে। অভিযুক্তদের সম্পত্তি নিয়ে খোঁজ খবর শুরু করেছে এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট। এই অবস্থায় আয় বর্হিভুত সম্পত্তি মামলা নতুন করে বিপাকে ফেলতে পারে এই নেতা-মন্ত্রীদের।

First published: 06:08:28 PM Mar 24, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर