পরীক্ষা শুরুর ১ ঘণ্টার মধ্যেই হোয়াটস অ্যাপে মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্র ফাঁস!

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 01, 2017 07:19 PM IST
পরীক্ষা শুরুর ১ ঘণ্টার মধ্যেই হোয়াটস অ্যাপে মাধ্যমিকের প্রশ্নপত্র ফাঁস!
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 01, 2017 07:19 PM IST

#কলকাতা: ফের প্রশ্নপত্রের ফাঁসের অভিযোগ ৷ দেদার টুকলির অভিযোগ তো আগেই ছিল ৷ তবে বুধবার যা হল তাতে ফের একবার মধ্যশিক্ষা পর্ষদের ভূমিকা ও নজরদারি নিয়ে প্রশ্ন উঠল ৷ পরীক্ষা শুরু এক ঘণ্টা সময় পেরতে না পেরতেই হোয়াটস অ্যাপে ঘুরে বেড়াতে দেখা গেল এদিনের পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ৷

এই খবর প্রকাশ্যে আসায় চাঞ্চল্য ছড়ায় ৷ মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে বিষয়টি জানানো হলে প্রথমে তারা তা গুজব বলে উড়িয়ে দেন ৷ কিন্তু মাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর হল থেকে পরীক্ষার্থীরা বেরনোর পর তাদের প্রশ্নপত্রের সঙ্গে হোয়াটস অ্যাপে পাওয়া প্রশ্ন মেলানো হয় ৷ দেখা যায়, প্রশ্নপত্র দুটি হুবহু এক ৷

পরে পর্ষদ চেয়ারম্যান কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় প্রশ্ন ফাঁসের কথায় প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেন, ‘পর্ষদের কাজের প্রক্রিয়াকে হেয় করতে এমন কাজ করা হয়েছে ৷ তদন্তে প্রমাণিত হলে শাস্তি হবে ৷’ তবে একইসঙ্গে পরীক্ষা বাতিলের সম্ভাবনা একেবারেই উড়িয়ে দেন পর্ষদ চেয়ারম্যান ৷

whats app madyamik question

এদিন মাধ্যমিকে ছিল ভৌত বিজ্ঞানের পরীক্ষা ৷ ঠিক দুপুর ১২ টায় শুরু হয় পরীক্ষা ৷ কিন্তু পরীক্ষা শুরু কিছুক্ষণের মধ্যেই হোয়াটস অ্যাপে পাওয়া যায় এদিনের ভৌত বিজ্ঞান পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ৷ বিষয়টি সাংবাদিকদের নজরে আসতেই তারা মধ্যশিক্ষা পর্ষদকে বিষয়টি জানান ৷ মালদহের রতুয়া ব্লকে ছয়টি স্কুল আছে ৷ সেই স্কুলগুলির মধ্যে একটি স্কুল থেকেই প্রশ্ন হোয়াটস অ্যাপে পাচার করা হয়েছে বলে সন্দেহ ৷

IMG-20170301-WA0027

রতুয়ার হাদু বিএসবি হাইস্কুলে প্রশ্নপত্র খোলার সময় ছবি তোলা হয় বলে সন্দেহ পর্ষদের ৷ জেলাশাসককে স্কুলের সব শিক্ষকের মোবাইল বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেয় স্কুল শিক্ষা দফতর ৷

পরীক্ষা শেষ হলে সাংবাদিকদের পর্ষদ চেয়ারম্যান কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, ‘পরীক্ষা বাতিল হওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই ৷ পরীক্ষা শুরুর পর ১২.৪৫ নাগাদ প্রশ্ন ফাঁসের খবর আসে ৷ ১১.৩০টায় প্রশ্নপত্র হলে পৌঁছেছে ৷ পরীক্ষা শুরু হলে মোবাইল বন্ধ রাখা নিয়ম ৷ পরীক্ষার সঙ্গে যুক্ত সকলের জন্যই এই নিয়ম প্রযোজ্য ৷ তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হবে ৷ ’

শুধু তাই নয়, ইতিমধ্যে পর্ষদের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে যতদিন না তদন্ত শেষ হচ্ছে, ততদিন শিক্ষক শিক্ষিকাদের মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করা হবে। সভাপতি আরও জানান,  যেখানে পর্ষদের তরফে প্রতিটি স্কুলে মোবাইল ফোন প্রধান শিক্ষকের কাছে জমা রাখতে বলা হয়েছিল, সেখানে কী ভাবে পরীক্ষা শুরু চলাকালীন প্রশ্নপত্র হোয়াটসঅ্যাপে বেরিয়ে যায়, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে।

First published: 06:03:08 PM Mar 01, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर