১৭ জুলাই বনধে অফিস না এলে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য বিপদ

Jul 12, 2017 05:46 PM IST | Updated on: Jul 12, 2017 05:48 PM IST

#কলকাতা: আগামী ১৭ জুলাই রাজ্যে শিক্ষাব্যবস্থায় পাশ-ফেল প্রথা ফিরিয়ে আনার দাবিতে ১২ ঘণ্টার জন্য বনধের ডাক দিয়েছে SUCI ৷ ১৭ জুলাই রাজ্যে জনজীবন স্বাভাবিক রাখতে ঝাঁপাচ্ছে রাজ্য সরকার। বনধের দিন সরকারি কর্মীদের হাজিরা নিশ্চিত করতে নবান্নের তরফে জারি হল গেজেট নোটিফিকেশন। যানবহন সচল রাখতে বাড়তি উদ্যোগ নিচ্ছে পরিবহণ দফতরও।

পাশ-ফেল নিয়ে কেন্দ্রের মুখাপেক্ষী রাজ্য ৷ অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পাশ ফেল প্রক্রিয়া ফিরিয়ে আনার পক্ষেই নিজের মত জানিয়ে কেন্দ্রকে চিঠি দিয়েছিল রাজ্য ৷ কিন্তু কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের তরফে কোনও স্পষ্ট নির্দেশ না আসায়, ফের কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়নমন্ত্রীকে চিঠি দিচ্ছেন শিক্ষামন্ত্রী পা‍র্থ চট্টোপাধ্যায় ৷ কিন্তু তা সত্ত্বেও রাজ্যের তরফে স্পষ্ট উদ্যোগ না দেখে বনধের রাস্তায় হাঁটছে SUCI ৷ তাদের দাবি, পড়ুয়াদের উন্নতির জন্য অবিলম্বে ফিরিয়ে আনা হোক পাশ-ফেল প্রথা ৷

১৭ জুলাই বনধে অফিস না এলে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের জন্য বিপদ

বনধ রুখতে মরিয়া সরকার ৷ এদিন নবান্নের তরফে নির্দেশিকা জারি করে জানানো হল, আগামী সোমবার কোনও কর্মী ন্যায্য কারণ ছাড়া অনুপস্থিত থাকলে ব্যবস্থা নেবে নবান্ন ৷ অনুপস্থিতির জন্য একদিনের বেতন কেটে নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চাকরিজীবন থেকে কমিয়ে দেওয়া হবে একটি দিনও ৷

রাস্তায় বেড়িয়ে কোনওভাবেই সমস্যায় পড়তে হবে না ৷ তা আগে থেকেই তা নিশ্চিত করতে চাইছে রাজ্য প্রশাসন। এই সূত্রেই নেওয়া হচ্ছে একাধিক ব্যবস্থা,

-বনধের দিন সরকারি কর্মীদের অফিসে আসা বাধ্যতামূলক

-বিশেষ কারণ ছাড়া ছুটি নিলে জবাবদিহি করতে হবে

-পরিবহণ দপ্তরের হাতে থাকা সব বাস-ট্রাম রাস্তায় নামবে

-সচল থাকবে জলপথও

-ট্যাক্সি সহ বেসরকারি পরিবহণও সচল রাখার চেষ্টা হবে

- যে্ কোনও সমস্যায় পড়লে সাহায্য করতে থাকবে হেল্পলাইন ও কিয়স্ক

বর্তমানে মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের নো ডিটেনশন পলিসি অনুযায়ী, ক্লাস এইট পর্যন্ত কাউকে ফেল করানো হয় না ৷ অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পরীক্ষায় অনুত্তীর্ণ হলেও নতুন শ্রেণীতে ক্লাস করার যোগ্যতা আপনাআপনিই পেয়ে যায় পড়ুয়ারা ৷ শুধু মাত্র শেখার উপর জোর দিতেই এই নীতি চালু করা হয়েছিল ৷ SUCI-এর অভিযোগ এর ফলে পড়ুয়াদের শিক্ষার মান ক্রমাগত নিম্নমুখী হচ্ছে ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES