রোজভ্যালিকাণ্ডে আরও মন্ত্রীকে তলব করতে পারে সিবিআই

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 07, 2017 03:42 PM IST
রোজভ্যালিকাণ্ডে আরও মন্ত্রীকে তলব করতে পারে সিবিআই
Photo : AFP
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 07, 2017 03:42 PM IST

#কলকাতা: রোজভ্যালি কাণ্ডে নয়া তথ্য সিবিআই-এর হাতে। সিবিআই-এর দাবি, রোজভ্যালির সঙ্গে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের যোগ রয়েছে। সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও গৌতম কুণ্ডুর মোবাইলের কললিস্ট ঘেঁটেই সেই সূত্র মিলেছে। কললিস্ট থেকে দু’জনের মধ্যে কথাবার্তার একাধিক প্রমাণও মিলেছে। ৩টি নম্বর দু’জনেই একাধিকবার ফোন করেন বলে গোয়েন্দারা নিশ্চিত। ওই তিনটি নম্বরের মধ্যে একটি নম্বর এক সাংসদের।

তাঁর সম্পর্কে আরও তথ্য হাতে এসেছে গোয়েন্দাদের। সিবিআইয়ের দাবি, সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ই গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গে ওই সাংসদের পরিচয় করিয়ে দেন। গৌতম কুণ্ডু ওই সাংসদের কাছে মেডিক্যাল কলেজ গড়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করেন। সিবিআই জানতে পেরেছে, গৌতম কুণ্ডুর থেকে ওই সাংসদ নিজে টাকা নেননি। কিন্তু, তাঁর মাধ্যমে পরিচয় হওয়া এক বিধায়ককে প্রায় নয় কোটি টাকা দেন গৌতম কুণ্ডু। পরে সেই মেডিক্যাল কলেজ আর হয়নি।

সূত্রের খবর, জেরায় বেশ কয়েকজন মন্ত্রী ও প্রভাবশালী ব্যক্তির নাম উঠে এসেছে ৷ খুব শীঘ্রই তাদের ডেকে পাঠাতে পারে গোয়েন্দা আধিকারিকরা ৷ ইডির রিপোর্টের ভিত্তিতে কয়েকজন প্রভাবশালী তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাকে তলব করেতে পারে সিবিআই ৷ সূ্ত্রের খবর, তাদের বিরুদ্ধে বেশ কিছু তথ্য প্রমাণ রয়েছে গোয়েন্দা আধিকারিকদের হাতে ৷ জানা গিয়েছে, রোজভ্যালিকাণ্ডে সুদীপ ও তাপস পালের নাম-সহ ১১জনের নাম রয়েছে ৷

২০১৫ মার্চ মাসে রোজভ্যালিকাণ্ডে গৌতম কুণ্ডুকে গ্রেফতার করে ইডি ৷ সূত্রের খবর, গ্রাহকরা রোজভ্যালির সম্বন্ধে অভিযোগ দায়ের করলে প্রভাবশালী এক তৃণমূল নেতা তা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন ৷ এর পরিবর্তে তাঁর মেয়েকে ব্যবসায়িক বেশকিছু সুযোগ সুবিধা দেন রোজভ্যালির কর্ণধার।

ইডি সূত্রে দাবি, এক প্রাক্তন ছাত্রনেতারও নাম রয়েছে রিপোর্টে। অভিযোগ, তিনি রোজভ্যালির বিরুদ্ধে মামলা হলে বিষয়টি দেখে নেবেন বলে আশ্বাস দেন।

এর আগে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে রোজভ্যালির থেকে কোটি কোটি টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ৷ সিবিআই সূত্রে খবর, গৌতম কুণ্ডু জানিয়েছেন বিলাসবহুল গাড়ি কেনার জন্য সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় ২৬ লক্ষ টাকা নিয়েছেন তাঁর থেকে ৷ এছাড়াও সিবিআই-এর পাওয়া তথ্যানুযায়ী, তৃণমূল সাংসদের বিদেশ ভ্রমণের সমস্ত খরচ বহন করতেন রোজভ্যালু কর্ণধার গৌতম কুণ্ডু ৷

তাপস পালের গ্রেফতারের পর সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বারবার যোগাযোগ করেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার অফিসাররা। তাঁকে সিজিও কমপ্লেক্সে ডেকে পাঠানো হয়। কিন্তু, তলব এড়াচ্ছিলেন সুদীপ। ১ জানুয়ারি সিবিআই অফিসারদের সঙ্গে ফোনে কথা হয় তাঁর। তাঁকে ৩ জানুয়ারি হাজিরা দেওয়ার চরম সময়সীমা দেওয়া হয়। তা আর এড়াতে পারেননি সুদীপ। মঙ্গলবার বেলা এগারোটা নাগাদ সিজিও কমপ্লেক্সে পৌঁছন সুদীপ। শুরু হয় টানা জেরা। সাড়ে তিন ঘণ্টা জেরার পর সুদীপকে গ্রেফতার করে সিবিআই ৷ বুধবার তাঁকে ভুবনেশ্বর আদালতে তোলা হলে আদালত ৯ জানুয়ারি অবধি সিবিআই হেফাজতের নির্দেশ দেন ৷

First published: 11:43:23 AM Jan 07, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर