২০১৮ সালে চলবে জোকা-মাঝেরহাট মেট্রো, কারশেডের জন্য বরাদ্দ হল ৫৮০ কোটি টাকা

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Apr 21, 2017 02:55 PM IST
২০১৮ সালে চলবে জোকা-মাঝেরহাট মেট্রো, কারশেডের জন্য বরাদ্দ হল ৫৮০ কোটি টাকা
Photo : AFP
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Apr 21, 2017 02:55 PM IST

#কলকাতা: জোকায় মেট্রোর কারশেড তৈরির জন্য বরাদ্দ করা হল অর্থ। কারশেড তৈরির জন্য বরাদ্দ করা হল ৫৮০ কোটি টাকা। জোকা থেকে মাঝেরহাট অংশে মেট্রো পথ এবং স্টেশন নির্মাণে কাজ এগোলেও কারশেড ছাড়া প্রকল্প চালু হওয়ার কোনও সম্ভাবনা ছিল না। অন্যদিকে কারশেড তৈরির জমি হাতে পেল রেল। । কাজ শুরু হবে শীঘ্রই জানাল রেলওয়ে বিকাশ নিগম লিমিটেড। ২০১৮ সালে চালু হবে জোকা-মােঝরহাট মেট্রো।

২০১৮ সালে জোকা থেকে মাঝেরহাট অবধি চালু হতে চলেছে মেট্রো। এই পথে মেট্রো লাইন ও স্টেশন নির্মাণ তৈরির কাজ চলছে দ্রুত গতিতে। কিন্তু মেট্রো কারশেডের জন্য ছিল না কোনও জায়গা। মেট্রো রেকগুলি রক্ষণেবেক্ষণের জন্য দরকার কারশেড। এছাড়া জোকাতে মেট্রো লাইন বা প্ল্যাটফর্ম বদলের জন্যেও প্রয়োজন ছিল কারশেডের। সেই কারশেড তৈরির জন্য অমিল ছিল জমি। মিলছিল না অর্থ। অবশেষে শুক্রবার দিল্লিতে বৈঠকে কাটল জমি ও অর্থের জটিলতা।

২০১১ সালে তদানীন্তন রেলমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়. রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাটিলকে সঙ্গে নিয়ে এই প্রকল্পের শিলান্যাস করেন। যদিও প্রথম থেকেই জমি এবং কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন দফতরের অনুমতি সংক্রান্ত জটিলতায় তা বারবার বিঘ্নিত হয়েছে। পরে সিদ্ধান্ত হয়, প্রথম পর্বে জোকা থেকে মাঝেরহাট পর্যন্ত ৭.৭৪ কিমি মেট্রো পথের কাজ আগে শেষ করা হবে। সেই কাজের জন্যই প্রয়োজন মেট্রো কারশেড। জট কাটানোর পর দুই দফতরের বক্তব্য -

মেট্রোর বক্তব্য,‘ জোকা থেকে মাঝেরহাট অংশে মেট্রো পথ এবং স্টেশন নির্মাণের কাজ এগোলেও কারশেড ছাড়া প্রকল্প চালু হওয়ার কোনও সম্ভাবনা ছিল না।

রাজ্য সরকারের সহযোগীতায় মিলেছে জমি। রেলওয়ে বিকাশ নিগম লিমিটেড কাজ করবে। কারশেড নির্মাণে বরাদ্দ হল ৫৮০ কোটি টাকা ৷’

রাজ্যের বকেয়া মেট্রো প্রকল্পগুলি নিয়ে নবান্নে রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গে মেট্রো কর্তৃপক্ষের বৈঠক হয়েছিল গত ৭ ফ্রেব্রুয়ারি। মুখ্যসচিবের উপস্থিতিতে ওই বৈঠকে অন্যতম আলোচ্য ছিল জোকা কারশেডের জন্য জমি অধিগ্রহণের সমস্যা মেটানো। ওই বৈঠকের পরে বিষয়টি নিয়ে কলকাতা পুরসভার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায় নিজে উদ্যোগী হন। প্রকল্প এলাকায় থাকা ১২টি বাড়িকে নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়েছিল। সেগুলির বাসিন্দাদের অন্যত্র সরানো হয়েছে। ২০১৭-১৭ সালের বাজেটে প্রকল্পের বরাদ্দ কমিয়ে ৫০ কোটি টাকা করা হয়েছে। তবে বরাদ্দ কমলেও কারশেড নিয়ে জটিলতা কাটায় আগামী বছর মেট্রো চালু হবে বলে মনে করছেন রাজ্য ও রেলের কর্তারা।

রিপোর্ট: আবীর ঘোষাল

First published: 02:54:45 PM Apr 21, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर