তোলাবাজি বা লবিবাজি বরদাস্ত নয়, দলের নেতা-কর্মীদের প্রকাশ্যে কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

Jun 02, 2017 09:24 AM IST | Updated on: Jun 02, 2017 09:24 AM IST

#কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক বৈঠকে রীতি ছিল পুলিশ ও আমলাদের ধমক দেওয়া। এবার প্রকাশ্যেই কড়া বার্তা দলের নেতা-কর্মীদের। তোলাবাজি বা লবিবাজি বরদাস্ত নয়। হুগলির প্রশাসনিক বৈঠক থেকে তৃণমূল নেতাদের বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর। তোলাবাজি নিয়েও কড়া বার্তা দেন তিনি। দলের নেতা-বিধায়কদের ধমক দিয়ে কার্যত বিরোধীদের তোলা অভিযোগেরই জবাব দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

হাওড়া হোক বা উত্তর চব্বিশ পরগনা। মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক বৈঠকে সর্বত্রই একই ছবি। উন্নয়ন-কর্মসংস্থান নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ধমক খাচ্ছেন পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তারা। কিন্তু বৃহস্পতিবার হুগলির প্রশাসনিক বৈঠকে অন্যছবি ধরা পরল। প্রকাশ্যেই দলের নেতা-কর্মীদের কড়া বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্টেডিয়ামের জন্য ১৪ কোটি টাকা চেয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ধমক খান চুঁচুড়ার বিধায়ক অসিত মজুমদার।

তোলাবাজি বা লবিবাজি বরদাস্ত নয়, দলের নেতা-কর্মীদের প্রকাশ্যে কড়া বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

এদিন গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নিয়েও কড়া বার্তা দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুরশুরায় দলের দুই গোষ্ঠীর দ্বন্দ্ব চরমে ওঠায় দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় বিধায়ক নুরুজ্জমানকে। তাঁর জায়গায় দায়িত্ব দেওয়া হয় পুরশুরার প্রাক্তন বিধায়ক পারভেজ রহমানকে।

সরকারি প্রকল্পের জন্য লবি করা চলবে না। হুগলিতে গ্রিন বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর ধমক খান শ্রীরামপুরের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

তোলাবাজি নিয়েও কড়া বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী। কাটমানিও কমিশন খাওয়া নিয়ে দলের নেতা-কর্মীদের বার্তা দিয়ে কার্যত বিরোধীদের তোলা অভিযোগেরই জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES