৬০ হাজার বুথে শান্তিবাহিনী গড়ার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

Jul 06, 2017 09:38 AM IST | Updated on: Jul 06, 2017 09:38 AM IST

#কলকাতা: উত্তর চব্বিশ পরগনার অশান্তিকে রাজনৈতিক হাতিয়ার করতে তৎপর রাজ্য বিজেপি। ওই ঘটনার ভিডিও প্রকাশ করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের দাবি, এ রাজ্যে রাষ্ট্রপতির শাসন জারি করতে হবে। সরেজমিনে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে আগামী ৭ জুলাই উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলায় যাবে বিজেপির একটি প্রতিনিধিদল।

এই বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, কেন্দ্রের শাসক দল রাজ্যের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে নেমেছে। টাকা ছড়িয়ে ফেসবুকে মিথ্যে পোস্ট করা হচ্ছে। হিংসায় ইন্ধন দেওয়া হচ্ছে। দু’পক্ষের কাছেই শান্তি ও সহাবস্থানের আবেদন রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

৬০ হাজার বুথে শান্তিবাহিনী গড়ার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

তিনি আরও বলেন, ‘ফেসবুক, টুইটারে মিথ্যা প্রচার ৷ ভুয়ো ছবি দিয়ে প্রচার চলছে ৷ বিজেপি-র এটা ট্রেন্ড ৷ তৃণমূলের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করছে ৷ প্রতিযোগিতায় লড়তে না পেরে চক্রান্ত করা হচ্ছে ৷’

রাজ্যে শান্তি বজায় রাখতে এবার নজিরবিহীন উদ্যোগ নিল রাজ্য সরকার ৷ বুধবার সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী জানান, এটা বিজেপির ষড়ষন্ত্র ৷ তারা সোশ্যাল মিডিয়ার অপব্যবহার করছে ৷ মানুষের মধ্যে গুজব রটাচ্ছে ৷ এর জেরে রাজ্যের ২-৩টি ব্লকে গণ্ডগোল হয়েছে। বিজিপির এর পিছনে মদত রয়েছে বলেও অভিযোগ জানান তিনি ৷

রাজ্যে শান্তি বজায় রাখতে পারবে রাজ্যের বাসিন্দারা নিজেই ৷ তাই এবার রাজ্যব্যাপী শান্তিবাহিনী গড়ারও ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। কেউ প্ররোচনা ছড়াচ্ছে কিনা ৷ মানুষে মানুষে ভেদাভেদ করছে কিনা, এর উপর নজরদারি রাখা হবে ৷ প্রতিটি বুথে শান্তি বাহিনী তৈরি হবে ৷ সাধারণ মানুষকে নিয়ে এই বাহিনী হবে ৷

মুখ্যমন্ত্রী জানান, ‘পুলিশ একা সব কাজ করতে পারে না ৷ সাধারণ মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে ৷ ধর্মীয় নেতা, ক্লাব-সহ সবাইকে আবেদন করছি এলাকার শান্তি রক্ষা করতেই হবে ৷ সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে ৷’

৬০ হাজার বুথে গড়া হবে শান্তি বাহিনী। প্রশাসনিক স্তরে সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES