সেরিব্রাল পসলিতে ভুগছে ছেলে, সমাজ থেকে দূরে রাখতে দড়িতে বাঁধা তার পা !

Apr 20, 2017 07:27 PM IST | Updated on: Apr 20, 2017 07:27 PM IST

#কৃষ্ণগঞ্জ: আর পাঁচটা শিশুদের মত জীবন স্বাভাবিক নয় সামিউল শেখ( ১১)। ছোটোবেলায় সেরিব্রাল পালসিতে আক্রান্ত হয়ে হারিয়ে গেছে তার জীবন থেকে শৈশব। হারিয়ে গেছে জীবনে সোজা হয়ে দাঁড়ানোর প্রশ্ন। ওর বয়সী ছেলেরা যখন খেলাধূলায় ব্যস্ত তখন দড়ি দিয়ে বাঁধা থাকে সামীউল। পাছে কোথাও চলে না যায় তাই এই সিদ্ধান্ত বলে জানান তার মা মর্জিনা বিবি। পরে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের চেষ্টায় মুক্ত । অভাবের সংসারে স্বামী স্ত্রী বাড়তি রেজগারের আশায় দুবেলা মাঠে পরিশ্রম করতে হয় সকলকেই। তাই সে সংসারে ব্রাত্য ।

সামিউলের বাড়ি নদিয়ার ভারত বাংলাদেশ সীমান্তের কৃষ্ণগঞ্জ থানার পাবাখালি গ্রামে। ছোটোবেলায় সেরিব্রাল পালসিতে আক্রান্ত হয়ে চলাফেরার ক্ষমতা নেই একেবায়েই। মা মর্জিনা বিবিই তার দেখভাল করেন। কাজে যাবার ফাঁকে বাড়ির বারান্দায় দীর্ঘদিন ধরে বাঁধা থাকে সামীউল। এত অসুবিধার ফাঁকেও তিনি চাননি ছেলেকে লেখাপড়া শেখা থেকে দূরে থাক। কোনোমতে প্রাইমারী স্কুলের গন্ডি পেরিয়ে শিবনিবাস মহানন্দ হাইস্কুলে পঞ্চম শ্রেনীতে তাকে ভরতি করেন। স্কুলের তরফ থেকে তার বাড়িতে ড্রেসের মাপ আনতে গিয়ে দেখেন দড়ি দিয়ে বাঁধা । খবর পেয়ে ছুটে আসেন স্কুলের শিক্ষকরা।

সেরিব্রাল পসলিতে ভুগছে ছেলে, সমাজ থেকে দূরে রাখতে দড়িতে বাঁধা তার পা !

তারপর তার মাকে বলে দড়ি খেলে দেন। বন্দি দশা থেকে মুক্ত হয়ে একরাশ আনন্দ তার চোখে ও মুখে। শংকর বাবু জানান তারা সঋকুলের তরফ থেকে ষ্পেশাল এডুকেটর দিয়ে পড়ানোর ব্যাবস্থা করেছিলেন কিন্তু এই ধরনের ঘটনা যথেষ্টই খারাপ। মা মর্জিনা বিবি তিনিও জানান ভবিষ্যতে আর এই ঘটনা ঘটাবেন না।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES