মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভপ্রকাশের পর তৎপর হল যাদবপুর, বিশ্ববিদ্যালয়ে আড়াইশো শূন্যপদে নিয়োগ

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Jan 12, 2017 07:53 PM IST
মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভপ্রকাশের পর তৎপর হল যাদবপুর, বিশ্ববিদ্যালয়ে আড়াইশো শূন্যপদে নিয়োগ
Photo : AFP
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Jan 12, 2017 07:53 PM IST

#কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভপ্রকাশের পর অবশেষে শূন্যপদ পূরণে উদ্যোগ নিল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়। বুধবারই বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি বিভাগের স্থায়ী ডিন নিয়োগের প্যানেল প্রকাশ করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। আগামী সপ্তাহে ডিন নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হলে, দ্রুত তিন বিভাগের বাকি শূন্যপদ পূরণ হবে বলে আশ্বাস বিশ্ববিদ্যালয়ের। তবে প্রশ্ন উঠছে, বিজ্ঞপ্তি জারির পরও কেন নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হল না।

যাদবপুরে কেন শূন্যপদ এত বেশি? গত শনিবার নেতাজি ইন্ডোরে শিক্ষকদের কনভেনশনে এই যাদবপুরের বিশ্ববিদ্যালয় সুরঞ্জন দাসের কাছে ক্ষোভপ্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, যাদবপুরের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপকদের পুনর্নিয়োগ নিয়ে যেখানে আন্দোলন হয়েছে, সেখানে দীর্ঘদিন ধরে নিয়োগ কেন হয়নি? সেই নিয়েও উপাচার্যের কাছে জানতে চান তিনি।

যাদবপুরে মোট শূন্যপদ - ২৫০

ইঞ্জিনিয়ারিং - ১৩০

আর্টস - ৭০

সায়েন্স - ৫০

মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষোভপ্রকাশের পরই তড়িঘড়ি পদক্ষেপ করে যাদবপুর কর্তৃপক্ষ।

নিয়োগে তৎপরতা

- বুধবার রাতে উচ্চশিক্ষা সংসদ ৩ বিভাগের ডিন নিয়োগের প্যানেল প্রকাশ করে

- সূত্রের খবর, আগামী সপ্তাহেই ডিন নিয়োগ শেষ হবে

- তারপরই অধ্যাপকদের শূন্যপদ পূরণ হবে

সূ্ত্রের খবর, মাসখানেক আগেই এই বিশাল শূন্যপদ নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি হয়। কিন্তু তারপরেও নিয়োগ শুরু হয়নি। উচ্চশিক্ষা দফতরের যুক্তি,

উচ্চশিক্ষা দফতরের যুক্তি

- যাদবপুরের নিয়োগ শেষ হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপকদের পূনর্নিয়োগ হবে না

- কারণ, অধ্যাপকদের পদগুলি পূরণ হয়ে গেলেই তার আর দরকার পড়বে না।

উচ্চ শিক্ষা দফতরের তরফে অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপকের পূনর্নিয়োগের বিষয়ে জানানো হয় রাজ্যের সব বিশ্ববিদ্যালয়কে। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় সেই সিদ্ধান্তকে বিরোধিতা করে অধ্যাপক নিয়োগ। যদিও পরে পিছু হঠে সেই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে। এদিকে প্রশ্ন উঠছে, দীর্ঘদিন যদিও রাজ্যের অন্যতম ঐতিহশালী বিশ্ববিদ্যালয় কেন শূ্ন্যপদ পূরণ করেনি।

First published: 07:53:05 PM Jan 12, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर