কী কী কারণে গ্রেফতার সুদীপ?

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 03, 2017 07:44 PM IST
কী কী কারণে গ্রেফতার সুদীপ?
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 03, 2017 07:44 PM IST

#কলকাতা: গৌতম কুণ্ডুকে জেরা করেই প্রথম সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম পায় সিবিআই। রোজভ্যালির ব্যবসা সম্প্রসারণে সাহায্য করেন তৃণমূল সাংসদ। রোজভ্যালির টাকায় সস্ত্রীক বিদেশে বেড়াতেও যান। গৌতম কুণ্ডুর তথ্যের ভিত্তিতেই আজ জেরা করা হয় সুদীপকে। আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত যাবতীয় প্রশ্নের সদুত্তর না পাওয়ায় তৃণমূল সাংসদকে গ্রেফতার করে সিবিআই।

 রোজভ্যালি কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুর সূত্রেই প্রথমবার নাম উঠে আসে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের। তাঁকে জেরা করেই জোরালো হয় রোজভ্যালি ও সুদীপ যোগ। তৃণমূল সাংসদকে নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য হাতে আসে সিবিআই-এর।

গৌতম সূত্রেই জালে সুদীপ

- গৌতম কুণ্ডুই প্রথম তাপস-সুদীপের নাম বলেন

- তারই ভিত্তিতে নিউটাউনে ডিএলএফ বিল্ডিংয়ে তল্লাশি

- তল্লাশিতে উদ্ধার বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি

- কম্পিউটারে মেলে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

- সস্ত্রীক সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিদেশ ভ্রমণের খরচ জোগায় রোজভ্যালি

- গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গে পারিবারিক সম্পর্ক ছিল সুদীপের

- তাঁর বিনিময়ে রোজভ্যালির ব্যবসা সম্প্রসারণে সাহায্য করেন তৃণমূল সাংসদ

- ব্যবসা সম্প্রসারণের জন্য সুদীপের লেখা চিঠি উদ্ধার হয়

- উদ্ধার হয় সাহায্যের বিনিময়ে নেওয়া টাকার ভাউচার

এই তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সিবিআইয়ের জয়েন্ট ডিরেক্টর ভূপেন্দ্রকিশোর আগরওয়ালের নেতৃত্বে জেরা করা হয় সুদীপকে। জেরায় তদন্তকারীরা জানতে চান,

প্রশ্ন ১: গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গে কবে থেকে পরিচয় এবং কার মাধ্যমে পরিচয়?

-- তৃণমূল নেতা হিসেবে অনেক শিল্পপতিই দেখা করতে আসেন। সেই হিসেবেই এক ব্যবসায়ীর মাধ্যমে গৌতম কুণ্ডুর সঙ্গে আলাপ

প্রশ্ন ২: বিদেশে যাওয়ার খরচ কে দিয়েছিল? আপনার কাছে খরচ সংক্রান্ত কী তথ্য আছে?

-- প্রথমে অস্বীকার করেন। সামান্য কয়েকটি খরচের বিল দেন

প্রশ্ন ৩: গৌতমের দাবি, আপনাদের নিয়মিত টাকা দেওয়া হত। কত টাকা পেতেন ? কীভাবে পেতেন?

-- কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি তৃণমূল সাংসদ। সুদীপের উত্তরে অসন্তুষ্ট তদন্তকারীরা

প্রশ্ন ৪: গৌতম কুণ্ডুকে সাহায্য করার জন্য কেন চিঠি দিয়েছিলেন?

-- এই প্রশ্নেরও সঠিক উত্তর ছিল না তৃণমূল সাংসদের কাছে

 মূলত আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত যাবতীয় প্রশ্নই এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন তৃণমূল সাংসদ। এরপরই ডিএলএফ বিল্ডিং থেকে পাওয়া তথ্য ও নথি সুদীপের সামনে রাখেন তদন্তকারীরা। তা দেখেই কার্যত ভেঙে পড়েন উত্তর কলকাতার তৃণমূল সাংসদ। সাড়ে তিন ঘণ্টার জেরার পর শেষমেষ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করে সিবিআই।

First published: 07:44:29 PM Jan 03, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर