ফলপ্রকাশ হলেও এখনই হচ্ছে না উচ্চমাধ্যমিকের শিক্ষক নিয়োগ!

May 02, 2017 06:56 PM IST | Updated on: May 30, 2017 01:34 PM IST

#কলকাতা: বহু প্রতীক্ষার পর আইনি জট পেরিয়ে অবশেষে প্রকাশিত হল উচ্চমাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার ফলাফল ৷ উচ্চমাধ্যমিক স্তরে চাকরিপ্রার্থীদের জন্য এটি সুখবর হলেও নিয়োগের ব্যাপারে আশার আলো দেখাতে পারল না স্কুল সার্ভিস কমিশন ৷ কমিশন সূত্রে খবর, ফলপ্রকাশ হলেও এখনই হচ্ছে না নিয়োগ ৷

ফলপ্রকাশ হলেও নিয়োগ আপাতত করছে না স্কুল সার্ভিস কমিশন।মঙ্গলবার প্রাথমিক পর্যায়ে একাদশ-দ্বাদশের লিখিত পরীক্ষার ফলপ্রকাশ করেছে। কমিশন সূত্রে খবর, শীঘ্রই নবম ও দশমের লিখিত পরীক্ষারও ফলপ্রকাশ করবে এসএসসি।তবে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্তরের নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হলেই উচ্চপ্রাথমিকের ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া শুরু করবে কমিশন।

ফলপ্রকাশ হলেও এখনই হচ্ছে না উচ্চমাধ্যমিকের শিক্ষক নিয়োগ!

জটিলতা ছিল।তা আরোও বাড়ল।অন্তত মঙ্গলবারের একাদশ-দাদ্বশের শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার ফলপ্রকাশের পর তা নিয়ে  চিন্তিত স্কুল শিক্ষা দফতরের আধিকারিকরা।

কমিশন সূ্ত্রে খবর, ইতিমধ্যেই কর্মরত শিক্ষকদের নিয়ে একটি মামলা হাইকোর্টে বিচারাধীন।মূলত এই মামলার উপর নির্ভর করছে মেধা তালিকায় কর্মরত শিক্ষকদের সুযোগ পাওয়ার বিষয়টি।ফলাফল বের করলেও চাকরির সুপারিশের উপর স্থগিতাদেশ রয়েছে।তাই লিখিত পরীক্ষার ফলাফল বের করলেও আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।

স্কুল সার্ভিস কমিশন চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, ‘একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণির লিখিত পরীক্ষার ফলপ্রকাশ হলেও এখনই নিয়োগ নয়। এরপর শুরু হবে ভেরিফিকেশন ও ইন্টারভিউ। তারপরই সম্ভব নিয়োগ ৷’ চাকরির সুপারিশের ওপর এখনও হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ রয়েছে ৷

যদিও কমিশনের যুক্তি মঙ্গলবার লিথিত পরীক্ষার ফলপ্রকাশের পর তথ্য যাচাই ও ইন্টারভিউ এর প্রক্রিয়া শুরু করা হবে।তাই তা শেষ হতে হতে মামলার শুনানি শেষ হয়ে যাবে।তাই আশঙ্কার কিছু নেই।

মঙ্গলবার বিকেলেই কমিশনের সরকারি ওয়েবসাইটে উচ্চমাধ্যমিক স্তরে শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার ফলপ্রকাশ করল স্কুল সার্ভিস কমিশন ৷ রেজাল্ট জানতে ক্লিক করুন- www.westbengalssc.org-ওয়েবসাইটে ৷

নির্দিষ্ট চেকবক্সে পরীক্ষার্থীরা নিজেদের ১৪ ডিজিট রোল নম্বর ও জন্মতারিখ দিলেই দেখতে পাবেন পরীক্ষার ফল ৷

তিনটি বিভাগে একাদশ-দ্বাদশের শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষার ফলপ্রকাশ করেছে কমিশন ৷ মূলত তথ্য যাচাই এর জন্য ডাকা হয়েছে,তথ্য যাচাই এর জন্য ডাকা হয়নি এবং প্রার্থীরা বাতিল- এই তিনভাগে ফলপ্রকাশ করেছে কমিশন ৷

 1:1.4 অনুপাতে ডাকা হচ্ছে উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ৷ অর্থাৎ ১০টি শূন্যপদের জন্য ১৪জন পরীক্ষার্থীকে ডাকা হবে ৷ তথ্য যাচাইয়ের জন্য ডাকা সব পরীক্ষার্থীদের ইন্টারভিউ সম্পূর্ণ হওয়ার পরও যদি শূন্যপদ থাকে তাহলে ‘তথ্য যাচাই এর জন্য ডাকা হয়নি’ বিভাগ থেকে পরীক্ষার্থীদের ডেকে পাঠানো হবে ৷

মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১লক্ষ ৫৩হাজার ৷ গত ৪ঠা ডিসেম্বর  নেওয়া হয়েছিল এই পরীক্ষা ৷ কমিশনের আশা, জুনের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই তথ্য যাচাই এর কাজ শেষ ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া শেষ করা যাবে।এদিকে মঙ্গলবার দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করার দাবিতে এসএসসি অফিসে বিক্ষোভ দেখান প্রাথীরা ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES