‘পুলিশের ভুঁড়ি হালকা নয়’, পুলিশের বপু নিয়ে মামলায় রুষ্ট হাইকোর্টের মন্তব্য

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 24, 2017 01:28 PM IST
‘পুলিশের ভুঁড়ি হালকা নয়’, পুলিশের বপু নিয়ে মামলায় রুষ্ট হাইকোর্টের মন্তব্য
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Mar 24, 2017 01:28 PM IST

#কলকাতা: স্বাস্থ্য রক্ষায় কী করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষক পুলিশ বাহিনী? পুলিশের ভুঁড়ি মামলায় প্রশ্ন হাইকোর্টের ৷ চার সপ্তাহ আগে কলকাতা পুলিশের থেকে হলফনামা চায় হাইকোর্ট ৷ কিন্তু সেই হলফনামায় সন্তুষ্ট হওয়ার বদলে রুষ্ট ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি নিশীথা মাত্রে ৷

কেউ ভুঁড়ি দিয়ে নাজেহাল। কারোর আবার দৌড়তেই বড় কষ্ট। চোর-ডাকাতের পিছনে ছুটতে হয় না। ফিট থাকার শর্তটাই তাই বাদ পড়ে গিয়েছে জীবন থেকে। কথা হচ্ছে পুলিশকে নিয়ে। এমনই সব পুলিশদের স্বাস্থ্যসচেতনায় কি করা হচ্ছে, তা জানতে চেয়ে মামলা হয়েছিল হাইকোর্টে। সেই মামলায় স্বরাষ্ট্র দফতরের হলফনামা তলব করল আদালত।

কেউ বিশাল, কেউ শুঁটকো ৷ আনফিট, আধাফিট এমনই সব পুলিশের হাতে সাধারণের নিরাপত্তার দায়িত্ব। শারীরিক ও মানসিক ভাবে কতটা প্রস্তুত পুলিশবাহিনী ? বাহিনীর স্বাস্থ্য ও মনোবল রক্ষায় কি করছে রাজ্য সরকার? জানতে চেয়েছিল হাইকোর্ট। কলকাতা পুলিশের জমা দেওয়া হলফনামায় প্রবল ক্ষুব্ধ প্রধান ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি নিশীতা মাত্রে ৷ ‘পুলিশের ভুঁড়ি হালকা বিষয় নয় ৷ হাইকোর্টেই কত ভুঁড়িওয়ালা পুলিশ রয়েছেন’, মন্তব্য ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির ৷

এখানেই শেষ নয় ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি নিশীথা মাত্রে বলেন, ‘মামলার অভিযোগ অত্যন্ত গুরুতর ৷ পুলিশই রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখে ৷ আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় পুলিশের ভূমিকা অনস্বীকার্য ৷ পুলিশের মামলা এত গুরুত্বহীনভাবে নেওয়া কেন? বছরে একবার চেকআপে পুলিশের স্বাস্থ্য ঠিক থাকে না ৷ পুলিশের বডি মাস ইনডেক্স তৈরির বিশেষ পদ্ধতি আছে ৷’

পুলিশের স্বাস্থ্য

গত ৩ বছরে পুলিশকর্মীদের স্বাস্থ্য রক্ষায় কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে?

কতগুলি শিবিরে কতজন পুলিশকর্মী অংশ নিয়েছেন?

১৮৬১ সালের পুলিশ আইন অনুসারে কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে

পুলিশের ভুঁড়িতে অসন্তুষ্ট হাইকোর্ট এবার এই মামলায় দু’সপ্তাহের মধ্যে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতরের কাছে হলফনামা চাইল হাইকোর্ট ৷

শৃঙ্খলারক্ষা বাহিনী বলে বলে কথা। শরীর চর্চা, স্বাস্থ্য সচেতনা মাস্ট। রাস্তাঘাটে তাকালে অবশ্য তা মালুম হয় না। পুলিশের এই

দশা নিয়ে প্রশ্ন তুলেই হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন আধাসামরিক বাহিনীর প্রাক্তন সদস্য।

পুলিশের চাকরি ছেড়ে যাত্রাপালায় যান। গত নভেম্বরে জেসপ পরিদর্শনে গিয়ে পুলিশকর্মীদের হাল দেখে আর রাগ চেপে রাখতে পারেননি হুগলির পুলিশ সুপার তন্ময় রায়চৌধুরী। এ নিয়ে এবার আদালতেও জবাবদিহির অপেক্ষা।

First published: 01:28:32 PM Mar 24, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर