‘বাঙালি রাষ্ট্রপতির পর, চাই বাঙালি প্রধানমন্ত্রী’ কে বললেন একথা?

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Jan 19, 2017 07:40 PM IST
‘বাঙালি রাষ্ট্রপতির পর, চাই বাঙালি প্রধানমন্ত্রী’ কে বললেন একথা?
Photo : AFP
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Jan 19, 2017 07:40 PM IST

#কলকাতা: মোদি নয়, বরং দেশের প্রধানের সিংহাসন আসুন কোনও বাঙালিই! একথা শুধু ভাবনাতেই নয়, ইদানিং একথা উচ্চারিত হচ্ছে রাজ্যের তৃণমূলের অন্দরেও ৷ আর সেই সুরই এবার ফুটে উঠল তৃণমূল নেতা ফিরাদ হাকিমের কথায় ৷ একটি বাংলা দৈনিক পত্রিকার ৩৫ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে বৃহস্পতিবার তিনি স্পষ্টই একথা জানালেন ৷ ফিরহাদ হাকিমের কথায়, ‘রাষ্ট্রপতি হয়েছেন বাংলার প্রণব মুখোপাধ্যায় ৷ বাংলা থেকে প্রধানমন্ত্রীও হোন ৷ আমরা সেটাই চাই ৷ ’

মোদির নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে জাতীয় রাজনীতিতে নিজের শক্তপোক্ত ছাপ ফেলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ নোট বাতিলকে সঙ্গী করে, বার বার মোদিকে কঠোর আক্রমণের মধ্যে দিয়ে দেশিয়ে রাজনীতিতে নিজের এক জায়গা তৈরি করতে সমর্থও হয়েছেন মমতা ৷ সেই গুরুত্বকে বুঝেই ফিরহাদ হাকিমের ইঙ্গিত মোদিকে হাটিয়ে বাংলা থেকেই হোক দেশের প্রধানমন্ত্রী ৷

আরও পড়ুন 

‘৫০ জনের স্বার্থ রক্ষা করতে গিয়ে, গোটা দেশের স্বার্থ বিসর্জন দিয়েছেন মোদি’: মমতা

মোদি-মমতা সংঘাত চরমে। প্রধানমন্ত্রীকে নজিরবিহীন আক্রমণ তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রীর। বললেন, মোদি তুঘলকি নেতা। দাঙ্গাবাজদের জনক সিবিআইয়ের নামে ষড়যন্ত্র চালাচ্ছেন। প্রতিবাদ করলেই ঘাড়ে বুলডোজার চালিয়ে দেওয়া হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি, মসনদ থেকে খুব তাড়াতাড়ি সরতে হবে মোদি সরকারকে।

নোটবন্দি নিয়ে মোদি-মমতা সংঘাতের শুরু। তার মাস দুয়েক কাটতে না কাটতেই, রোজভ্যালিকাণ্ডে তাপস পাল ও সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের গ্রেফতার সেই সংঘাতের আগুনে ঘি ঢেলেছে। কিন্তু, পরপর দুই তৃণমূল কংগ্রেস নেতা গ্রেফতার কেন? নোটবাতিলের প্রতিবাদের পালটা রাজনৈতিক প্রতিহিংমসার কথা বলছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন

মোদি ছাড়া তৈরি হোক জাতীয় সরকার, নেতৃত্ব দিন আডবানি-রাজনাথ: মমতা

মোদিকে দাঙ্গাবাজ বলেও আক্রমণ শানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গুজরাতের দাঙ্গাকারী, ভেবেছিলাম প্রধানমন্ত্রী হয়ে বদলাবে, মাথাটাই ক্রিমিনাল হয়ে গিয়েছে ৷ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও তাপস পালের মতো দুই তৃণমূল কংগ্রেস নেতার গ্রেফতারের প্রতিবাদে সরাসরি লড়াইয়ে নেমেছে তৃণমূল কংগ্রেস। নোটবাতিলের নানা সমস্যার কথা তুলে ধরে, সাধারণ মানুষের মধ্যেও সেই লড়াইয়ের বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নোট বাতিলের প্রসঙ্গ টেনে এনে মোদিকে সোজাসুজি আক্রমণ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ঘরে আগামী দিনে খাবার থাকবে না...... যে যেরকম ভাবে পারবেন রুখে দাঁড়ান।

নেতাদের গ্রেফতার করা হলেও বিজেপির বিরুদ্ধে আন্দোলনে ছেদ পড়বে না। বরং, প্রতিহিংসার রাজনীতি বলে অভিযোগ তুলে পালটা প্রচার চালাবে তৃণমূল কংগ্রেস। মঙ্গলবার সেই বার্তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

First published: 07:40:46 PM Jan 19, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर