অতীতের মার ভুলে আহত পুলিশকেই এবার বাঁচালেন ইটিভির সাংবাদিক !

May 25, 2017 05:50 PM IST | Updated on: May 25, 2017 05:54 PM IST

#কলকাতা: গত সপ্তাহেই পার্কস্ট্রিটে মার খেয়েছিলেন ইটিভির এই প্রতিনিধি। সোমবার পুলিশের মারের হাত থেকে রেহাই পায়নি বাকিরাও। আহত হন কমপক্ষে ৩০-৩২ জন। বৃহস্পতিবার বিজেপি সমর্থকদের মারধরের হাত থেকে এক পুলিশকর্মীকে উদ্ধার করলেন ইটিভি নিউজ বাংলার সাংবাদিক। একেই বলে বোধহয় পোয়েটিক জাস্টিস। সোমবার পুলিশের হাতে মার খেয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার কার্যত ঝুঁকি নিয়েই পুলিশকর্মীর প্রাণ বাঁচালেন সুকান্ত। ইটিভি নিউজ বাংলার সাংবাদিকের ৷ প্রশংসায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

আরও একবার প্রকৃত সাংবাদিকতার নজির ইটিভি নিউজ বাংলার। মানুষের কাছে খবর পৌঁছে দিতে গিয়ে বারবারই এমন অভিজ্ঞতা হয়েছে। তবু সেসব ভুলেই কর্তব্য আর মানবিকতার নজির ইটিভি নিউজ বাংলার

প্রতিনিধি সুকান্ত মুখোপাধ্যায়ের। বেন্টিঙ্ক স্ট্রিটে তখন মারমুখী হয়ে উঠেছেন বিজেপি কর্মীরা। এক পুলিশকর্মীকে একা পেয়ে শুরু হয় বেধড়ক মারধর। কর্তব্যের খাতিরে খুব কাছেই ছিলেন সুকান্ত। পুরনো ঘটনা ভুলেই পুলিশকর্মীকে উদ্ধারে ছুটে যান তিনি। মারমুখী বিজেপি সমর্থকদের হাত থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয় আহত পুলিশকর্মীকে।

বামেদের নবান্ন অভিযান থেকে শিক্ষা নিয়ে এদিন অনেক সংযত ছিল পুলিশ। নিখুঁত ছিল প্রস্তুতি ও পরিকল্পনাও। সোমবার যেখানে সাংবাদিকদের ওপর বেধড়ক লাঠি চালিয়েছিল পুলিশকর্মীরা, সেখানেই আহত বিজেপি নেতা-কর্মীদের শুশ্রসায় এগিয়ে আসতে দেখা গেল পুলিশকে।

নবান্ন অভিযানে সাংবাদিকদের পেটানোর মতো ঘটনার আটকাতে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন পুলিশ কমিশনার। সতর্কতা হিসাবেই কর্তব্যরত সাংবাদিকদের দেওয়া হয় প্রেস লেখা জ্যাকেট। সেই জ্যাকেট পরেই কর্তব্য পালন করলেন সাংবাদিকরা। আর তাতেই নজির হয়ে রইল ইটিভি নিউজ বাংলার প্রতিনিধি সুকান্ত মুখোপাধ্যায়ের ভূমিকা।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES