শহরে ফের নিশানায় একাকী বৃদ্ধা, ভরদুপুরে বাড়িতে ঢুকে লুটপাট

Feb 17, 2017 05:00 PM IST | Updated on: Feb 17, 2017 05:00 PM IST

#কলকাতা: শহরে ফের টার্গেট একাকী বৃদ্ধা। ভরদুপুরে বাড়িতে ঢুকে পঁচাশি বছরের বৃদ্ধার উপর চড়াও হয় একদল দুষ্কৃতী। তাকে মারধর করে, মুখে বালিশ চাপা দিয়ে চলে অবাধ লুঠপাট। সোনা গয়না ও বেশ কয়েক হাজার নগদ নিয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। ঘটনার তদন্তে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা।

নিঃসঙ্গ বার্ধক্য। শহরের নিঃসঙ্গ বৃদ্ধ-বৃদ্ধারাই এখন দুষ্কৃতীদের সফট টার্গেট। কলকাতায় ক্রমশই বাড়ছে বয়স্কদের উপর আক্রমণের ঘটনা। বেলেঘাটা তারই নতুন সংযোজন।

শহরে ফের নিশানায় একাকী বৃদ্ধা, ভরদুপুরে বাড়িতে ঢুকে লুটপাট

৯৯ বি কবি সুকান্ত সরণি, বেলেঘাটা ৷ বৃহস্পতিবার দুপুর। ফাঁকা বাড়ি। ছেলে অবসরপ্রাপ্ত রেলকর্মী তুহিন মিত্র পোস্টঅফিসে টাকা তুলতে গিয়েছেন। বাড়িতে একা পঁচাশি বছরের লতিকা মিত্র।

---দুপুর আড়াইটে নাগাদ বাড়ির দরজায় ধাক্কা দেয় তিন দুষ্কৃতী

--- বৃদ্ধা দরজা খুললে তাঁর গলা চেপে ধরে ঘুষি লাথি মারতে শুরু করে দুষ্কৃতীরা

---বালিশ দিয়ে মুখও চেপে ধরে তারা

-- সমস্ত জানলা বন্ধ করে শুরু হয় অপারেশন

--- চার ভরি সোনার গয়না, বেশ কয়েক হাজার টাকা লুঠ করে চম্পট দেয় তারা

ঘটনার তদন্তে কলকাতা পুলিশের গোয়েন্দা শাখা। ৯৯ বি তে ভাড়া থাকেন মিত্র পরিবার। ঘটনার সময়ে পুরো বাড়ি ফাঁকা ছিল। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, এরই সুযোগে আগে থেকে পরিকল্পনা করে হানা দেয় দুষ্কৃতীরা। পুরো বাড়ির ম্যাপিং জেনেই অপারেশন চালায় তারা।

বার্ধক্য বড় বালাই। শারীরিকভাবে অশক্ত বয়স্ক নাগরিকরা সহজেই সশস্ত্র আক্রমণের শিকার হচ্ছেন। নগদ, সোনাদানার লোভে দুষ্কৃতীরা বেছে নিচ্ছে শহরের নিঃসঙ্গ বয়স্ক মানুষজনকে। নিরাপত্তার গলদ খুঁজে রীতিমতো ছক করে তারা হানা দিচ্ছে বাড়িতে। প্রতিরোধে অক্ষম বয়স্কদের কাবু করতে এতটুকুও বেগ পেতে হচ্ছে না। তাই তাঁরাই সফট টার্গেট। শহরে একের পর এক বৃদ্ধ-বৃদ্ধা খুনের ঘটনাই তার প্রমান।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES