ঋতব্রতকে তীব্র ভর্ৎসনা সিপিএম রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর

Feb 23, 2017 11:59 AM IST | Updated on: Feb 23, 2017 11:59 AM IST

#কলকাতা: দলীয় সমর্থককে হুমকির ঘটনায় রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর তীব্র ভর্ৎসনার মুখে পড়েন সিপিএম সাংসদ ঋতব্রত বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রশ্ন তোলা হয় ঋতব্রতর উচ্চমানের জীবনযাপন নিয়েও। যদিও তরুণ সাংসদকে কড়া শাস্তি দেওয়ার পথে হাঁটেনি রাজ্য নেতৃত্ব। বকুনিতেই মিলেছে ছাড়।বৃহস্পতিবার সিপিএম রাজ্য কমিটির বৈঠক ফের উঠতে পারে ঋতব্রত প্রসঙ্গ।

ই-মেলে দলীয় সমর্থকের চাকরি খাওয়ার হুমকি। রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর ভর্ৎসনার মুখে ঋতব্রত। বুধবার সিপিএম রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠকে তীব্র ভর্ৎসনা করা হয় দলের রাজ্যসভার সাংসদকে। প্রশ্ন তোলা হয় তাঁর উচ্চমানের জীবনযাপনের ধরন নিয়েও। এদিন সকাল দশটায় আলিমুদ্দিনে ঢোকেন ঋতব্রত। সাড়ে দশটা থেকে শুরু হয় বৈঠক।

ঋতব্রতকে তীব্র ভর্ৎসনা সিপিএম রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর

শুরুতেই সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন, ‘তোমাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিতর্ক চলছে। এখন সেটা প্রকাশ্যে চলে এসেছে। এ ব্যাপারে তোমার কিছু বলার আছে?’

 আত্মপক্ষ সমর্থনে ঋতব্রত বলেন,

- আমাকে ম্যালাইন করার উদ্দেশ্য নিয়ে কেউ কেউ এটা করছে

- এটা ঠিক যে আমার আরও চিন্তাভাবনা করে পদক্ষেপ করা উচিত ছিল

- ভবিষ্যতে আরও সতর্ক থাকব

- আমার বিরুদ্ধে দল কোনও ব্যবস্থা নিলে মাথা পেতে নেব

যদিও সাংসদের সাফাই খুশি করতে পারেনি দলকে। সূর্যকান্ত পালটা বলেন, ‘কিন্তু মেল পাঠানোকেও দল অনুমোদন করছে না ৷’

এদিন অবশ্য ভর্ৎসনা করেই ছেড়ে দেওয়া হয় তরুণ সাংসদকে। বৃহস্পতিবার রাজ্য কমিটির বৈঠকে ফের উঠতে পারে ঋতব্রত প্রসঙ্গ। যেখানে উপস্থিত থাকতে পারেন দলের সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি। তাঁর সামনেই কি আরও কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হবে ঋতব্রতকে? নাকি আরও একপ্রস্থ ধমকেই ছেড়ে দেওয়া হবে দলের রাজ্যসভার সাংসদকে?

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES