‘কোনও ভাবে দাঙ্গাকে প্রশ্রয় নয়, দু’পক্ষকেই ভাল ভাবে পেটাও’, পৈলানে পুলিশকে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 02, 2017 07:38 PM IST
‘কোনও ভাবে দাঙ্গাকে প্রশ্রয় নয়, দু’পক্ষকেই ভাল ভাবে পেটাও’, পৈলানে পুলিশকে নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 02, 2017 07:38 PM IST

#পৈলান:বীরভূমের পর এবার ভাঙড় থেকেও পুলিশকে বেআইনি অস্ত্র উদ্ধারের নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। পৈলানের প্রশাসনিক সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রীর কড়া বার্তা, ভাঙড়ের কয়েকটি বাড়িতে অস্ত্র ও বোমা মজুত রয়েছে এখনও। দ্রুত তা উদ্ধার করুক পুলিশ। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার বিভিন্ন এলাকায় বাড়ছে খুনখারাপি-সহ নানা অপরাধ। তাতেও লাগাম টানার নির্দেশ দিয়েছেন মমতা। একইসঙ্গে দাঙ্গা বাধাতে এলে কড়া হাতে নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর ৷

এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘ভাঙড়ে এখনও বোমা-বন্দুক আছে ৷ বাইরের অনেক বোমা-বন্দুক রয়েছে ৷ সেগুলো সব উদ্ধার করতে হবে ৷ বহিরাগতরা অশান্তি পাকানোর চেষ্টা করছে ৷ আমার কাছে সব খবর আছে ৷ অস্ত্র নিয়ে কাউকে খেলতে দেব না ৷ সুপারি কিলারকে রেয়াত নয় ৷ পুলিশকে আরও কড়া হতে হবে ৷ কোনও ভাবে দাঙ্গাকে প্রশ্রয় নয় ৷ দু’পক্ষকেই ভাল ভাবে পেটাও ৷ যাতে আর যেন দাঙ্গা করতে না পারে ৷’

পাওয়ার স্টেশন ঘিরে দীর্ঘদিন ধরেই উত্তপ্ত ভাঙড়। আন্দোলন বিক্ষোভের আঁচ এসে পড়ে প্রশাসনের ওপরেও। জ্বালিয়ে দেওয়া হয় পুলিশের গাড়ি। বাহিনীকে লক্ষ্য করে ছোড়া হয় বোমাও।

বিক্ষোভকারীদের হাতে কোথা থেকে এল বোমা বা আগ্নেয়াস্ত্র? প্রশাসনের দাবি, আন্দোলনের নামে এলাকায় বোমা ও আগ্নেয়াস্ত্র মজুত করেছে বহিরাগতরা। সেই দাবিতে সিলমোহর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। পুলিশকে কড়া হাতে অস্ত্র উদ্ধারের নির্দেশও দিলেন তিনি।

দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার বিভিন্ন অংশে অপরাধ বাড়ছে। বাড়ছে সুপারি কিলিংয়ের ঘটনাও। তা নিয়েও পুলিশকে সতর্ক করেছেন তিনি।

 রাজ্যের বিভিন্ন অংশে মাঝেমাঝেই মাথাচাড়া দিচ্ছে সাম্প্রদায়িক শক্তি। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলাতেও যাতে সেই আগুন না ছড়ায় তা নিয়েও পুলিশকে সতর্ক করলেন মমতা।

ভাঙড়ের আন্দোলন এখনও ধিকিধিকি জ্বলছে। পৈলানের প্রশাসনিক বৈঠক থেকে তাতে লাগাম পরানোর বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

First published: 07:38:35 PM Jun 02, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर