মেধাবী পড়ুয়াদের রাজনীতিতে আহবান, তেমন হলে নিজের জায়গা ছাড়তেও রাজি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 03, 2017 10:42 AM IST
মেধাবী পড়ুয়াদের রাজনীতিতে আহবান, তেমন হলে নিজের জায়গা ছাড়তেও রাজি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jun 03, 2017 10:42 AM IST

#পৈলান: শিক্ষিত ছেলেমেয়েরা রাজনীতিতে আসুন। প্রয়োজনে তাঁদের জন্য নিজের জায়গাও ছেড়ে দেবেন। পৈলানে চতুর্থ প্রশাসনিক বৈঠকে পড়ুয়াদের সঙ্গে আলোচনায় সরাসরি আহ্বান জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। যাদবপুর ও ডায়মন্ড হারবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের তাঁর বার্তা, লক্ষ লক্ষ মানুষের ভবিষ্যতের স্বার্থে রাজনীতিতে আসুন।

মেধাবী ছাত্রদের আরও বেশি করে রাজনীতিতে আসা উচিত। এতে রাজনীতির মান বৃদ্ধি পাবে। পৈলানের সভা থেকে মন্তব্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

দেশে রাজনীতির মান নিয়ে প্রশ্ন নতুন নয়। পৈলানে যাদবপুর ও ডায়মন্ড হারবার বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের সঙ্গে আলোচনায় এবার সেই একই প্রশ্নের মুখে পড়লেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ধাঁধা থেকে বেরনোর পথ কী? কোন পথে উত্তরণ ঘটবে রাজনীতির? চিরকালই সরাসরি কথা বলা পছন্দ তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রীর। উত্তর দিলেন নিজস্ব ভঙ্গিতেই। রাজনীতির নানা বাধ্যবাধকতার কথাও স্বীকার করে নিলেন খোলা মনে। বললেন, ‘তোমরা রাজনীতিতে এস ৷ তেমন হলে আমি আমার জায়গা ছেড়ে দেব ৷ আমার কথা আমি আগেই স্পষ্ট করে দিয়েছি ৷’

শিক্ষা-সহ নানা ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সরকারের একাধিক পদক্ষেপ নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রীর প্রতিবাদ জারি। পড়ুয়াদের মধ্যেও ছড়িয়ে দিলেন সেই উত্তাপ।

মুখ্যমন্ত্রীকে হাতের কাছে পেয়ে নানা অভাব অভিযোগের কথাও শোনালেন দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। যথাসাধ্য পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দিলেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান। অভিযোগগুলি হল-

কেন্দ্রের স্কলারশিপে ক্ষোভ

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তায় ক্ষোভ

কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়েই শুরু হয় রাজনীতির পাঠ। এ রাজ্যে সেই ধারা বয়ে চলেছে অনেকদিন ধরেই। শুক্রবার, পড়ুয়াদের মুখ্যমন্ত্রীর স্পষ্ট বার্তা, ‘খারাপ বলে রাজনীতিকে দূরে ঠেলে দিলে হবে না। নোংরা সাফ করতে চাই তাজা রক্ত।’

First published: 10:42:08 AM Jun 03, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर