সুদীপের বিদেশ ভ্রমণে রোজভ্যালির নগদ, উঠছে প্রশ্ন

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 11, 2017 03:36 PM IST
সুদীপের বিদেশ ভ্রমণে রোজভ্যালির নগদ, উঠছে প্রশ্ন
Photo : AFP
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jan 11, 2017 03:36 PM IST

#ভুবনেশ্বর: বিদেশ ভ্রমণ নিয়ে নয়া জটিলতায় সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। সিবিআই সূত্রে খবর, যে পাঁচ লক্ষ টাকা ট্রাভেল এজেন্সিকে ড্রাফট করার দাবি করছেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ, তা আসলে ভুয়ো। ট্রাভেল এজেন্সিরও দাবি, ব্যাঙ্ক ড্রাফটের মাধ্যমে তাঁরা কোনও টাকাই হাতে পাননি। যদিও সুদীপের দাবি, আইন মেনেই তিনি সমস্ত টাকা মিটিয়েছেন।

দু’বার বিদেশ ভ্রমণের ১৮ লক্ষ টাকা কি রোজভ্যালির থেকেই নিয়েছিলেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়? সুদীপ নিজে সেই অভিযোগ উড়িয়ে দিলেও, তা নিয়ে বড়সড় প্রশ্ন তুলে দিল সিবিআই। রোজভ্যালির সঙ্গে যোগসাজশের প্রমাণ হিসেবে সুদীপের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে মারাত্মক হাতিয়ার তৈরি করছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

সিবিআইয়ের দাবি

- বিদেশ ভ্রমণের জন্য প্রয়োজনীয় টাকা যে ট্রাভেল এজেন্সিকে ড্রাফট করার যে দাবি সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় করছেন, তা মিথ্যা

- ইতিমধ্যেই কলকাতার ওই ট্রাভেল এজেন্সির কর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করেছে সিবিআই

- তাতে স্পষ্ট, রসিদ ও ব্যাঙ্ক ড্রাফটে যে তারিখ দেখানো হয়েছে ট্রাভেল এজেন্সিতে সেই তারিখে কোনও এন্ট্রি নেই

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অন্যতম অভিযোগ রোজভ্যালির টাকায় দু’বার বিদেশে যান ৷ বিদেশে ভ্রমণের ১৮ লক্ষ টাকা রোজভ্যালি দেয় বলে সিবিআইয়ের অভিযোগ ৷ সুদীপের দাবি, ৫ লক্ষ টাকা ব্যাঙ্ক ড্রাফট করা হয়েছে  ৷ এখন প্রশ্ন উঠছে,  তাহলে বাকি টাকা কে দিল?

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন,  ‘ট্রাভেল এজেন্সির সঙ্গে যা কথা হয়েছিল সেই টাকা দিয়েছি ৷ কে, কেন টাকা দিয়েছে আমি কী জানি!’ সিবিআইয়ের দাবি,  ট্রাভেল এজেন্সির রসিদ আদালতে জমা করা হয়েছে ৷ রসিদ, ব্যাঙ্ক ড্রাফ্ট খতিয়ে দেখা হচ্ছে ৷ সন্দেহের উৎপত্তি দুই জায়গায় ৷

১. রসিদ ও ড্রাফটে যে তারিখ দেখানো হয়েছে সেই তারিখের কোনও এন্ট্রিই ট্রাভেল এজেন্সির লিস্টে নেই

২. ট্রাভেল এজেন্সির বক্তব্য, তারা ব্যাঙ্ক ড্রাফ্টের মাধ্যমে টাকা পাননি  ৷ কাগজপত্রে গোলমাল রয়েছে ৷

সিবিআই মনে করছে, এটাই সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে বড়সড় প্রমাণ ৷ যদিও সুদীপের দাবি, তিনি কোনও বেআইনি কাজ করেননি ৷

First published: 03:36:19 PM Jan 11, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर