‘বিজেপি ভারত ছাড়ো’, ভারত ছাড়ো আন্দোলনের ৭৫ তম বর্ষপূর্তিতে মমতার ডাক

Aug 09, 2017 04:34 PM IST | Updated on: Aug 09, 2017 04:34 PM IST

#কলকাতা: টার্গেট লোকসভা নির্বাচন। বিরোধীদের জোট গড়েই ২০১৯ সালে ভোটে বিজেপিকে জোর ধাক্কা দিতে চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস। এবার ভারত ছাড়ো আন্দোলনের ৭৫ তম বর্ষপূর্তিতেই দেশ থেকে বিজেপিকে হঠানোর ডাক দিলেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। মেদিনীপুরের জনসভা থেকে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রীর মন্তব্য, জাতপাতের নামে দেশভাগের খেলায় নেমেছে বিজেপি। বিপন্ন গণতন্ত্র। বিপন্ন দেশের মানুষ।

৭৫ বছর আগে, ভারত ছাড়ো আন্দোলনে গান্ধিজির দেওয়া ব্রিটিশ বিরোধী স্লোগান। সেই স্লোগানই নয়া আঙ্গিকে তুলে আনলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন,

‘বিজেপি ভারত ছাড়ো’, ভারত ছাড়ো আন্দোলনের ৭৫ তম বর্ষপূর্তিতে মমতার ডাক

Pic Courtesy PTI

‘২০১৯ সাল আমাদের টার্গেট ৷ বিজেপি হঠাও, দেশ বাঁচাও ৷ বিজেপি হঠাও, বাংলা বাঁচাও ৷ এই স্লোগান নিয়ে লড়াই চালিয়ে যাব ৷’

কেন বিজেপির বিরুদ্ধে দেশজোড়া লড়াইয়ে নামছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী? তাঁর অভিযোগ, দেশ জুড়ে জাতপাতের নামে বিভাজনের খেলায় নেমেছে বিজেপি। তাতে দেশভাগের সম্ভাবনা ক্রমশই জোরালো হচ্ছে। দেশের মানুষের অস্তিত্বের সংকটও বাড়ছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

 মুখ্যমন্ত্রী বলেন,  ‘দিল্লিতে বসে দেশভাগে উসকানি ৷ এটা মেনে নেওয়া যায় না, সংঘাত হবেই ৷ হিন্দু-মুসলমান ভাগ করার চক্রান্ত চলছে ৷ রাজনৈতিক স্বার্থে চক্রান্ত বিজেপি-র ৷ ভাগাভাগির খেলা এখানে চলবে না ৷ মোদির সরকারের হাতে দেশ বিপন্ন ৷ প্রতিবাদ করলেই ভয় দেখানো হচ্ছে ৷ কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থাগুলিকে কাজে লাগাচ্ছে ৷ সেই ভয় উপেক্ষা করে লড়াই করছি ৷’

 নোটবন্দি, জিএসটি-সহ নানা বিষয়ে অন্যান্য বিরোধীদের সঙ্গে হাতে হাত মিলিয়েই জাতীয় স্তরে আন্দোলন করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দু’হাজার উনিশের লক্ষ্যে এবার বিহার ও ঝাড়খণ্ড থেকেই শুরু হতে চলেছে তাঁর বিজেপি বিরোধী অভিযান।

একসময় বিজেপি হঠাও, দেশ বাঁচাও বলে স্লোগান তুলেছিল বামেরাও। দেশ জুড়ে বিজেপি বিরোধী জোট নিয়ে সেই বামেদের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘ বামেদের ডবল স্ট্যান্ডার্ড, ওরা বিজেপির সঙ্গে হাত মিলিয়েছে ৷’

গুজরাতে রাজ্যসভা নির্বাচন নিয়ে প্রেস্টির ফাইটে খানিকটা পিছু হঠতে হয়েছে বিজেপিকে। তা নিয়েও বিজেপিকে বিঁধতে ছাড়েননি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES