তপন শিকদারের মৃত্যুবার্ষিকীতে প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

Jun 03, 2017 02:05 PM IST | Updated on: Jun 03, 2017 02:17 PM IST

#কলকাতা: তপন শিকদারের মৃত্যুবার্ষিকীতেও বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের ছায়া পড়ল। তৃতীয় প্রয়ান দিবসের অনুষ্টানে বর্তমান ক্ষমতাসীন বিজেপির কাছে কার্যত ব্রাত্যই থেকে গেলেন রাজ্যে বিজেপির সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা তপন শিকদার।

বাম জামানায় রাজ্যে বিজেপির একমাত্র সাংসদ, মন্ত্রী ছিলেন তপন শিকদার। রাজ্য বিজেপির অন্যতম মুখ ছিলেন তপন। গত ২০১৪ র লোকসভা ভোটে শেষবারের মতো প্রার্থী হয়ে ছিলেন তপন। কিন্তু, ভোটের ফল দেখে যেতে পারেননি। আর সেই লোকসভা ভোটের জেরেই দেশে ক্ষমতায় আসে বিজেপি। রাজ্যেও বাড়বাড়ন্ত হয় বিজেপির। কিন্তু, মারা যাবার পর তিনটি বছর কাটতে না কাটতেই তাকে ভুলে গেছে দল। মোদি মেলায় ব্যস্ত। তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকীতে দলের অনুষ্ঠানে নেই দিলীপ ঘোষ বা কেন্দ্রীয় কোন নেতা । আর, পরিহাসের বিষয় যাদের হাতে ক্ষমতাচ্যুত হয়েছিলেন তপন সেই শত্রু শিবিরের উদ্যোগেই হল তপন স্মরন। আক্ষেপ তপন শিকদারের ভাইপো বিজেপি নেতা সৌরভ শিকদারের।

তপন শিকদারের মৃত্যুবার্ষিকীতে প্রকাশ্যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকীতে দলের তরফে দমদম এলাকায় দু’একটি রক্তদান শিবির করা হয়। কিন্তু, সেই সব অনুষ্ঠানে রাজ্যের কোন তৃতীয় সারির নেতাও হাজির ছিলেন না। বিকালে রাজ্য দপ্তরের অনুষ্ঠানেও উল্লেখযোগ্য উপস্থিতি বলতে সেই বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সুব্রত চ্যাটার্জী ছাড়া রাহুল সিনহা-সহ প্রাক্তনীরাই। প্রয়ান দিবসের অনুষ্ঠানে প্রচারে আনতে দলের মিডিয়া সেলের তরফেও বিশেষ কোন আগ্রহ দেখা যায় নি। দলের একাংশের কাছে বর্তমান প্রজন্মের কাছে তপন শিকদারকে ভুলিয়ে দেবার চেষ্টা হচ্ছে। ঠারেঠোরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি রাহুল সিনহা।

সূত্রের খবর , দলের স্মরণ অনুষ্ঠানে যোগ না দিতে নেতা কর্মীদের ফোন করে নিষেধ করেন দলেরই বর্তমান এক সাধারন সম্পাদক ও নেত্রী। যোগ দিতে গিয়েও ফিরে আসেন শমীক ভট্টাচার্যের মতো তপন অনুগামীরা।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES