এই ব্যাঙ্ক ম্যানেজার গ্রাহকের সঙ্গে যা করেছেন জানলে চমকে উঠবেন!

Jul 14, 2017 08:36 AM IST | Updated on: Jul 14, 2017 08:36 AM IST

#কলকাতা: শীর্ষ আয়কর কর্তা থেকে ব্যাঙ্ক ম্যানেজার। নোট বাতিলের পর কালো টাকা সাদা করতে পিছিয়ে ছিলেন না কেউই। এমনই প্রতারণার দায়ে গ্রেফতার হলেন ব্যাঙ্ক অফ কর্নাটকের রাজারহাট শাখার ম্যানেজার।

অন্যের নামে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খুলে টাকা রেখেছিলেন ওই ব্যাঙ্ককর্তা। নোট বাতিলের সময় ব্যাঙ্ক ম্যানেজারদের একটি চক্র এভাবেই কোটি কোটি টাকা পাচার করেছে বলে জেনেছে পুলিশ। ধৃত ব্যাঙ্ককর্তাকে জেরা করে এই চক্রের হদিশ পেতে চাইছে পুলিশ।

এই ব্যাঙ্ক ম্যানেজার গ্রাহকের সঙ্গে যা করেছেন জানলে চমকে উঠবেন!

ব্যাঙ্কে জমা পড়া টাকার পাইপয়সার হিসাব রাখার দায়িত্ব তার। অথচ নোট বাতিলের সময় তিনিই তিনিই খুলে ফেললেন ভুয়ো অ্যাকাউন্ট। যার নামে অ্যাকাউন্ট, তাকে অন্ধকারে রেখেই অ্যাকাউন্টে জমা পড়ল লক্ষ লক্ষ টাকা। টাকা চালানে এই প্রতারণার দায়েই গ্রেফতার কর্নাটক ব্যাঙ্কের রাজারহাট শাখার ম্যানেজার। মধুসূদন গান্ধির বিরুদ্ধে অভিযোগ রীতিমতো চাঞ্চল্যকর,

গত বছরের নভেম্বরে নিজের ব্যাঙ্কেই ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খোলেন ব্যাঙ্ক ম্যানেজার

লেকটাউনের বাসিন্দা সন্তোষ শর্মার নামে খোলা হয় অ্যাকাউন্ট

দু-দফায় অ্যাকাউন্টে জমা পড়ে ৬ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা

প্যান নম্বর যুক্ত থাকায় সন্তোষকে নোটিশ পাঠায় আয়কর দফতর

আয়কর নোটিশ পেয়ে আকাশ থেকে পড়েন সন্তোষ। ওই ব্যাঙ্কে কোনইদিনই অ্যাকাউন্ট খোলেননি তিনি। আয়কর দফতরের অনুরোধে তদন্তে নামে পুলিশ। তদন্তে স্পষ্ট, টাকা পাচারেই যে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খুলেছিলেন ব্যাঙ্ক ম্যানেজার। তারপরই অভিযুক্ত ব্যাঙ্ক ম্যানেজারকে গ্রেফতার করে বিধাননগর সাইবার ক্রাইম থানা।

নোট বাতিলের সময় ব্যাঙ্ক ম্যানেজারদের হাতযশে পাচার হয়েছে বহু কোটি টাকা। এই কাজে তৈরি হয়েছিল একটি চক্র। অন্যের নামে অ্যাকাউন্ট খুলে কিংবা অন্যের অ্যাকাউন্টে টাকা রেখে সেই কাজ করেছেন ব্যাঙ্ককর্তারাই। ধৃত ব্যাঙ্ক ম্যানেজার এভাবে আরও টাকা পাচার করেছেন এমন সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES