কোর্টের হস্তক্ষেপে ব্যাঙ্কের প্রবেশিকা পরীক্ষায় বসার অনুমতি পেল তৃতীয় লিঙ্গ

Mar 17, 2017 04:36 PM IST | Updated on: Mar 17, 2017 04:36 PM IST

#কলকাতা: আইন তৈরি হয়েছে বহু আগেই, তবুও তা মান্যতা পায় না কার্যক্ষেত্রে ৷ সুপ্রিম কোর্ট তৃতীয় লিঙ্গকে মান্যতা দিলেও বাস্তবে আজও নিজের অধিকারের জন্য লড়াই করতে হয় এই শ্রেণীভুক্ত মানুষদের ৷ সম্প্রতি অত্রি করের হাত ধরে এমনই এক ঘটনা সামনে এল ৷

তৃতীয় লিঙ্গ শ্রেণীভুক্ত অত্রি কর স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন ৷ সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতেই তৃতীয় লিঙ্গ সংক্রান্ত গাইডলাইন আরও একবার উল্লেখ করে হাইকোর্টের নির্দেশ, এই শ্রেণীর মানুষকে সংরক্ষণের সুবিধা দিতে হবে ৷

কোর্টের হস্তক্ষেপে ব্যাঙ্কের প্রবেশিকা পরীক্ষায় বসার অনুমতি পেল তৃতীয় লিঙ্গ

স্টেট ব্যাঙ্কের প্রবেশনারি পরীক্ষায় আবেদন করার সময় অত্রি কর দেখেন, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ সত্ত্বেও বিজ্ঞাপনে তৃতীয় লিঙ্গের আবেদনের জন্য কোনও স্থানই নেই ৷ এর ভিত্তিতেই কলকাতা হাইকোর্টে তিনি রিট পিটিশন দায়ের করেন ৷ মামলাকারীর তরফে আইনজীবী কৌশিক গুপ্ত ও ঐন্দ্রিলা চক্রবর্তী সংবিধানের ১২ নং আর্টিক্যালের উল্লেখ করে অত্রি করের মতো তৃতীয় লিঙ্গের শ্রেণীভুক্ত মানুষদের পরীক্ষায় বসার আবেদন মঞ্জুর করার আবেদন জানান ৷

ছবি সৌজন্য- ফেসবুক ছবি সৌজন্য- ফেসবুক

সেই মামলাতেই বিচারক দেবাংশু বসাক এসবিআইকে নির্দেশ দেন, গাইডলাইন অনুযায়ী পুরুষ ও নারীর পাশাপাশি তৃতীয় লিঙ্গ শ্রেণীভুক্ত মানুষদেরও পরীক্ষায় বসার সুযোগ দিতে হবে এবং সুপ্রিম কোর্টের বেঁধে দেওয়া NALSA নিয়মাবলী অনুযায়ী নির্দেশিত সংরক্ষণের সুবিধা দিতে হবে ৷

এর আগেই তৃতীয় লিঙ্গের অধিকারের জন্য সরব হয়েছিলেন অত্রি ৷ হুগলির একটি প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষকপদে কর্মরত অত্রি এসএসসি এবং টেট পরীক্ষায় পাশ করার পর চাকরির চুড়ান্ত পর্যায়ের ফর্ম ফিলাপের সময় সমস্যার সম্মুখীন হন ৷ কারণ, ওই ফর্মে তৃতীয় লিঙ্গের জন্য কিছু নির্দিষ্ট করা ছিল না ৷

এই সমস্যা নিয়ে আদালত এবং ট্রাইবুন্যালে অভিযোগ দায়ের করা ছাড়াও অত্রি, শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও বিষয়টি জানান ৷ সে সময়ও কোর্টের হস্তক্ষেপে বিষয়টির সমাধান হয় ৷

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES