হনুমান জয়ন্তীতে সশস্ত্র মিছিলের ঘটনায় ৬ বিজেপি কর্মীর জেল হেফাজত

Apr 12, 2017 03:58 PM IST | Updated on: Apr 12, 2017 03:58 PM IST

#কলকাতা: চিৎপুরে অস্ত্র মিছিলের ঘটনায় ধৃত ৬ জনকে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল শিয়ালদহ আদালত। বুধবার অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অনুমতি ছাড়া অস্ত্র নিয়ে মিছিল, উষ্কানিমূলক শব্দ ব‍্যবহারের অভিযোগে মামলা করে চিৎপুর থানার পুলিশ। এদিকে, হনুমান জয়ন্তীর মিছিল ঘিরে সিউড়িতে গেরুয়া শিবিরের তাণ্ডবের ঘটনায় ধৃত ৩ জনকে ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল সিউড়ি আদালত।

রাজ‍্য অস্ত্র মিছিলের ঘটনায় প্রথম গ্রেফতার। হনুমান জয়ন্তীতে প্রতিবারের মতো এবারও টালা ব্রিজে মিছিল করে বজরং দলের সমর্থকরা। তবে অন‍্যবারের থেকে ছবিটা ছিল আলাদা। তাই মিছিলের উপর নজর রাখে কলকাতা পুলিশের বিশেষ টিম। অভিযোগ, শুধু অস্ত্র নয়, মিছিল থেকে একটি বিশেষ ধর্মের বিরুদ্ধে দেওয়া হচ্ছিল উষ্কানিমূলক মন্তব‍্যও। এর পরই ৬ জনের বিরুদ্ধে চিৎপুর থানায় সুয়োমোটো মামলা করে পুলিশ। একাধিক ধারায় তাদের গ্রেফতার করা হয়।

হনুমান জয়ন্তীতে সশস্ত্র মিছিলের ঘটনায় ৬ বিজেপি কর্মীর জেল হেফাজত

কোন ধারায় মামলা

-----------------------

ধারা                                  অভিযোগ                                             সাজা                            

১৪৮                       অস্ত্রসহ গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে সামিল হওয়া                জামিন অযোগ্য, ৩ বছর পর্যন্ত জেল

১৪৯                       বেআইনি জমায়েতের সদস্য হওয়া               জামিন অযোগ্য, ৩ বছর পর্যন্ত জেল

১৫৩-এ                            ধর্মীয় বিভেদ, ঘৃণায় প্রশ্রয় দেওয়া              জামিন অযোগ্য, ৩ বছর পর্যন্ত জেল

২৫(১-এ) অস্ত্র আইন            বেআইনি অস্ত্র রাখা ও প্রদর্শন                জামিন অযোগ্য, ৭ বছর পর্যন্ত জেল

ধৃতদের শিয়ালদহ আদালতে পেশ করা হলে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়।

পুলিশ অনুমতি না দিলেও জোর করে সিউড়িতে মিছিল করে হিন্দু জাগরণ মঞ্চ। পুলিশ মিছিল আটকালে শুরু হয় ধস্তাধস্তি। মিছিল থেকে পুলিশকে লক্ষ্য ইট ছোড়া হয়। পালটা লাঠি চালায় পুলিশ। এই ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়।  এদিন তাদের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল সিউড়ি আদালত।

অস্ত্র মিছিলের ঘটনায় কড়া পদক্ষেপ রাজ‍্যের। এ নিয়ে বিজেপির সঙ্গে রাজ‍্য সরকারের রাজনৈতিক সংঘাত কোন পথে যায়, সেদিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।

RELATED STORIES

RECOMMENDED STORIES